অবশেষে ৫দিন পর তদন্তকারী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ২নং আসামী কক্ষের তালা খুলে দিলেন

ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চুরি হওয়া মামলার তদন্ততকারী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ২নং আসামী সকল কক্ষের তালা খুলে দিলেন।

দির্ঘ ৫ দিন ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়ন পরিষদ বন্ধ থাকার পর গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৪:০০ টায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভূরুঙ্গামারী থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ জয়নুল এর উপস্থিতিতে ২নং আসামী সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যানের ছোট ভাই রাশেদুর রহমান মুন (৪০) তথ্যসেবা কেন্দ্র সহ উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের সকল কক্ষের তালা খুুুলে দেন।

এর আগে তদন্তকারী কর্মকর্তা সহ পুলিশের একটি টিম ইউনিয়ন পরিষদে গেলে মামলার ১নং আসামী সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যান একেএম মাহমুদুর রহমান রোজেন তাদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেন। একপর্যায়ে তারা নিরুপায় হয়ে পুলিশনভ্যান নিয়ে থানা ফিরে যান।


আরও পড়ুন>>


এব্যাপারে প্যানেল চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান জানান, বরখাস্ত হওয়া চেযারম্যানের বাধার কারণে প্রথম দফায় তালা খুলতে ব্যার্থ হলে পরে ২নং আসামীর সহযোগিতায় ১০ জুন (বৃহস্পতিবার) আনুমানিক বিকেল ৪:০০ টার দিকে সকল কক্ষের তালা খুলে দেয়। কিন্তু, ৩ জুন (বৃহস্পতিবার) সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চেযারম্যানের নেতৃত্বে একটি চক্র তথ্য সেবা কেন্দ্র থেকে জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয়া দু’টি ল্যাপটপ, কম্পিউটার ও প্রিন্টার উদ্ধার নাহওয়ায় তথ্য সেবার কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

- Advertisement -

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ

Bengali Bengali English English German German Italian Italian
%d bloggers like this: