অভিনেত্রীর জন্য ছবিতে যৌনদৃশ্য বদলেছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ

0
14
অভিনেত্রীর জন্য ছবিতে যৌনদৃশ্য বদলেছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ
অভিনেত্রীর জন্য ছবিতে যৌনদৃশ্য বদলেছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ

অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন অভিনেত্রী পায়েল ঘোষ। কিন্তু এই অভিনেত্রীর অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করছেন বলিউডের অভিনেত্রীরা, যাঁরা অনুরাগের সঙ্গে কাজ করেছেন। তাপসী পান্নু থেকে শুরু করে হুমা কুরেশি সকলেই অনুরাগের হয়ে সরব হয়েছেন। এবার সেক্রেড গেমস এর অভিনেত্রী এলনাজ নরুজি অনুরাগের স্বপক্ষে মুখ খুললেন।

ইনস্টাগ্রামে অনুরাগের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে এলনাজ লেখেন, “আমার মনে আছে, সেক্রেড গেমসে একটি নির্দিষ্ট যৌনদৃশ্য থাকায় আমি কাজটি ছেড়ে দিচ্ছিলাম। কারণ আমি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছিলাম না। কিন্তু সবকিছুর পরেও অনুরাগ কাশ্যপ স্যর আমায় মেসেজ করে বলেন, ‘তুমি ভয় পেও না, শুধু বিশ্বাস করো আমায়’। ততদিনে মাত্র একটা দিন শুটিং করেছিলাম। ওনার সঙ্গে সেভাবে পরিচয় হয়নি। বুঝতে পারছিলাম না বিশ্বাস করা উচিত কিনা। কিন্তু ওনার কথা শুনে নিই।”

এরপর সেই বিশেষ দৃশ্যটি শুটিংয়ের দিন আসে। এলনাজ বেশ চিন্তায় ছিলেন সেদিন। তিনি ভাবছিলেন কিভাবে ওই দৃশ্যটির শুটিং না করা যায়। তিনি ভেবেছিলেন তাঁকে দিয়ে যেনতেন প্রকারেণ ওই দৃশ্যটি অভিনয় করানো হবে। কিন্তু অভিনেত্রী অবাক হয়েছিলেন। কারণ তার স্বাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে ওই বিশেষ দৃশ্যে বহু পরিবর্তন এনেছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ।

এলনাজ লিখছেন, “ওই দৃশ্যটির শুটিং এর দিন আমার প্রচণ্ড ভয় করছিল। আমার মনে হচ্ছিল আমাকে দিয়ে এই দৃশ্যটি যেভাবে হোক শুটিং করানো হবে। আমি না বলতে পারবো না কারণ আমাকে বলা হয়েছিল স্ক্রিপ্টে কোনো পরিবর্তন হবে না। তাই মনে হচ্ছিল ওই দৃশ্য শুটিং করতেই হবে প্রস্তুত না হলেও। আমায় সেটে ডাকা হল এবং অনুরাগ স্যর আমাকে বললেন আমার স্বাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে কিভাবে দৃশ্যটি শ্যুট করার কথা ভেবেছেন। আমার চোখের জল এসে গিয়েছিল। আমি সত্যি ভাবিনি আমার কথা ভেবে তিনি এটা করবেন।”

এলনাজ জানিয়েছেন এর পরে তাঁর সুবিধামত পোশাক পরেই সেই দৃশ্যটির শুটিং করা হয়। যদিও স্ক্রিপ্টে অন্যরকম ছিল। অভিনেত্রী বলছেন, “আমার ধারণা যে ভুল সেটা তিনি প্রমাণ করে দিয়েছিলেন। সেদিন শুটিং শেষ হওয়ার পর আমি আমার ভ্যানিটি ভ্যানে বসে কেঁদেছিলাম। পরে এমন একটা মানুষ হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে অনুরাগ স্যরকে বড় মেসেজ পাঠিয়েছিলাম।”

Leave a Reply