এই সরকারকে সরাতে হবে, বললেন ফখরুল

0
11
এই সরকারকে সরাতে হবে, বললেন ফখরুল
এই সরকারকে সরাতে হবে, বললেন ফখরুল

জোর করে ক্ষমতায় থাকতেই সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করেছে বলে মন্তব্য করে বিএনপির শীর্ষ নেতারা বলেছেন, এই সরকারকে সরাতে সব রাজনৈতিক দল ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) সকালে রাজধানীতে জাতীয়তাবাদী যুবদলের প্রতিবাদ সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তারা।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল দাবিতে এদিন সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী যুবদল। বেলা ১১টায় সমাবেশ শুরু করার কথা থাকলেও সকাল সাড়ে ৯টায় নির্ধারিত সময়ের প্রায় দেড় ঘণ্টা আগে তোপখানা রোডে জমায়েত হন নেতাকর্মী ও সমর্থকরা।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের শীর্ষ কয়েকজন নেতা যোগ দেন কর্মসূচিতে। সমাবেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবির পাশাপাশি জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন বিএনপি নেতারা। সমাবেশে আসতে নেতাকর্মীদের বাধা দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করা হয়।

বক্তব্যের শুরুতেই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস অভিযোগ তুলে বলেন, সকাল থেকে সমাবেশে আসতে নেতাকর্মীদের বাধা দিচ্ছে পুলিশ। পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের ‘বেয়াদব’ অ্যাখ্যা দিয়ে মির্জা আব্বাস বলেন, এই ধরনের বেয়াদব বাহিনী দিয়ে ক্ষমতা রক্ষা করা যাবে না। জনগণের আন্দোলনের তোড়ে সবকিছু ভেসে যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


আরও পড়ুন>>


প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ক্ষমতায় থাকার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার। তিনি বলেন, এই সরকারকে সরাতে হবে। কারণ এই সরকার জনগণের নির্বাচিত নয়। জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে সরকারের পতন হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকারের বিরুদ্ধে আমাদেরকেই দাঁড়াতে হবে, শক্ত হয়ে দাঁড়াতে হবে, ঐক্যবদ্ধ হয়ে দাঁড়াতে হবে। সব রাজনৈতিক দল এক হয়ে আন্দোলন করতে হবে।

সমাবেশের কারণে তোপখানা রোডের একটি লেনে যানবাহন চলাচল করে। সমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রেসক্লাব এলাকায় সকাল থেকেই মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ।

Leave a Reply