একনেকে ১০ প্রকল্পের অনুমোদন

- Advertisement -

মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পে ব্যয় বাড়লো প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা। ৪৪ শতাংশ বাড়িয়ে বর্তমান ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৫১ হাজার ৮৫৪ কোটি টাকা। এই বরাদ্দের বেশিরভাগ অর্থ খরচ করা হবে গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ কাজে।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত (জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি) একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন।

এসময় ১০টি উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ২৯ হাজার ৩৪৪ কোটি টাকা। এছাড়াও বৈঠকে ৩ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা ব্যয়ে হাওর এলাকায় উড়াল সড়ক ও ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

দেশের দক্ষিণ পূর্বাংশে কক্সবাজার, চট্রগ্রাম অঞ্চল ঘিরে উন্নয়নের মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। তারই অংশহিসাবে মাতারবাড়িতে কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রায় ৩৬ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ের প্রকল্পটি ২০১৪ থেকে শুরু হয়ে ২০২৩ এ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

তবে দেড় মাস পর প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় সংশোধনী এনে প্রকল্পটির ব্যয় বাড়ানো হলো ১৫ হাজার ৮৭০ কোটি টাকা। সেই সঙ্গে মেয়াদও বাড়লো ৩ বছর। নতুন এই অর্থের বেশিরভাগ ব্যয় করা হবে মাতারবাড়ি সমুদ্র বন্দরকে গভীর সমুদ্রবন্দর হিসাবে ব্যবহার করার কাজে।

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানিয়েছেন, ১২০০ মেগাওয়াটের একটি প্লাটসহ আরও পরিকল্পনা এখানে অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।

হাওর এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের জন্য তৈরি করা হবে উড়াল সড়ক। এজন্য ৩ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা ব্যয় করতে চায় সরকার।

এম এ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত আগ্রহে আমরা উড়াল সড়কের প্রকল্প নিয়েছি ওই এলাকার জন্য। আরও অনেকগুলো কানেক্টিং রোড়ও থাকবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০০৫-০৬ অর্থবছরের পরিবর্তন করে ২০১৫-১৬ অর্থবছর নতুন ভিত্তি বছর ধরে বাংলাদেশের অর্থনীতির আকার দাঁড়িয়েছে ৪১১ বিলিয়ন ডলার। এছাড়া এখন দেশে মাথাপিছু আয় ২৫৫৪ ডলার বা ২ লাখ ১৬ হাজার ৫৮৯ টাকা।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ