ওমিক্রনে চতুর্থ ডোজও কার্যকরী নয়!

- Advertisement -

কোভিড-১৯ এর চতুর্থ ডোজ তৃতীয় ডোজের চেয়ে অ্যান্টিবডি তৈরিতে বেশি সক্ষম হলেও ওমিক্রন ইনফেকশন আটকাতে যথেষ্ঠ নয় বলে এক প্রাথমিক পরীক্ষায় জানিয়েছেন ইসরাইলের গবেষকরা।

ইসরাইলের শেবা মেডিকেল সেন্টারের কর্মকর্তাদের সম্প্রতি দ্বিতীয় বুস্টারডোজ দেওয়া হয়েছে। গবেষকরা ১৫৪ জনকে ফাইজার টিকা দিয়ে তার দুই সপ্তাহ পর প্রতিক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছেন। একইভাবে ১২০ জনকে মডার্নার বুস্টার দিয়ে ১ সপ্তাহ পর প্রতিক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংক্রামক রোগ ইউনিটের পরিচালক গিলি রেগেভ ইয়োচায়।

ভ্যাকসিনের চতুর্থ শট নেননি এমন একদল কর্মীর সঙ্গে ফলাফলগুলো তুলনা করে দেখা গেছে, অ্যান্টিবডির সংখ্যায় পরিবর্তন এসেছে এবং তা বৃদ্ধি পেয়েছে। গিলি রেগেভ গণমাধ্যমকে আরও জানান, তবুও এটা ওমিক্রনের জন্য যথেষ্ঠ নয়। ভ্যাকসিন শক্তিশালী হলেও ওমিক্রন রুখতে যে পরিমাণ অ্যান্টিবডি দরকার তা পাওয়া সম্ভব হয়নি।

শেবা মেডিকেল সেন্টার থেকে পাওয়া ফলাফলগুলো এই প্রথম বিশ্বের সামনে এল। এখনো এই বিষয়ে গবেষণা প্রাথমিক পর্যায়ে আছে এবং গবেষণাকর্ম প্রকাশিত হয়নি।

বিশ্বে সবচেয়ে দ্রুততার সঙ্গে টিকা কার্যক্রম পরিচালনায় ইসরাইল এগিয়ে। তারা উচ্চ আশঙ্কায় থাকা নাগরিকদের গত মাস থেকেই চতুর্থ ডোজ ভ্যাকসিন বা দ্বিতীয় বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু করেছে।

এদিকে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের তাণ্ডবে টালমাটাল বিশ্ব। আগামী ছয় মাসের মধ্যে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে, এমন আশঙ্কা করছেন ঝাং ওয়েনহং নামে চীনের এক বিশেষজ্ঞ। তবে ওমিক্রন মোকাবিলায় বুস্টার ডোজ কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে বলেও জানান তিনি।

এ অবস্থায় ওমিক্রন নিয়ে আপাতত কোনো স্বস্তির খবর নেই। উল্টো আগামীতে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাবে বলে মনে করছেন চীনা বিশেষজ্ঞ ঝাং ওয়েনহং। এক সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেছেন, করোনার নতুন ধরনটি এক দেশ থেকে আর এক দেশে ছড়িয়ে পড়ায় একে প্রতিরোধ করা অনেক কঠিন।

চীনা বিশেষজ্ঞ ঝাং ওয়েনহং বলেন, করোনার প্রত্যেকটি ঢেউ নির্দিষ্ট একটি ধারাতে মানবদেহে সংক্রমিত হয়েছে। কিন্তু অপরিচিত কোনো ধরন যদি আসে তাহলে ভবিষ্যতে আরও ঝুঁকি দেখা দেবে। এখনই সঠিক পদক্ষেপ না নিলে, বড় চালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে বিশ্বকে।

আশঙ্কার কথা বললেও, করোনার নতুন ধরন মোকাবিলায় বেশ কিছু পরামর্শও দিয়েছেন এই বিশেষজ্ঞ। বলছেন, বুস্টার ডোজই পারে মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করে নতুন ধরন প্রতিরোধ করতে। একইসঙ্গে বুস্টার ডোজ মৃত্যুহারও অনেকাংশে কমিয়ে আনবে বলে মত এই বিশেষজ্ঞের।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ