কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে তৈরি হচ্ছে ডিজিটাল ডাটাবেজ তৈরি করেছে আরএমপি

দেশে প্রথমবারের মতো কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে ডিজিটাল ডাটাবেজ তৈরি করেছে রাজশাহী নগর পুলিশ।

বখাটেপনা, ছিনতাই, ইভটিজিংসহ নানা অপরাধে যুক্ত ৪শ’ কিশোরের তথ্য, ছবি ও মোবাইল নম্বরসহ অভিভাবকের তথ্যও সংরক্ষণ করা হয়েছে। এছাড়া দ্রুত অপরাধী শনাক্তের জন্য রাজশাহী নগরীকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে।

রাজশাহীতে যেসব অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে তার বেশিরভাগই কিশোরদের সৃষ্টি। বাইক পার্টি, মাদকসেবন ও ব্যবসা, ছিনতাই, ইভটিজিং, খুন সবকিছুতেই কিশোর অপরাধীরা জড়িত। এসব কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে গত অক্টোবর মাস থেকে কাজ শুরু করে পুলিশ। এরই মাঝে চার শতাধিক কিশোরকে আটক করে মুচলেকায় ছাড়া হয়। অনেককেই বিভিন্ন অপরাধে পাঠানো হয় কারাগারে। তাদের যাবতীয় তথ্য রেখে দেয়া হয়েছে পুলিশের ডিজিটাল ডাটাবেজে। আর এমন কার্যক্রমে কমেছে অপরাধ ও বেপরোয়াপণা।

রাজশাহীর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক জানান, ডাটাবেজে কিশোর অপরাধীদের যাবতীয় তথ্য সংরক্ষণ করা হচ্ছে। তারা কোথায় কোথায় যায়, তাদের ফোন নম্বর, বাড়ির ঠিকানা সব তথ্যই সংরক্ষণ করা হচ্ছে। এতে, পরবর্তীতে তাদের খুব সহজেই আইনের আওতায় নেয়া হবে।


আরও পড়ুন>>


দ্রুত অপরাধী শনাক্তে নগরীকে ৫০০ সিসি ক্যামেরা বসানোর কাজ চলছে। এরইমধ্যে ২০০টি স্পটে সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশ কমিশনার।

অপরাধী সম্পর্কে দ্রুত তথ্য দিতে খোলা হয়েছে হ্যালো আরএমপি অ্যাপ। এ থেকেও কাঙ্খিত সেবা পাবেন নগরবাসী।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: