গাঁজার কেকসহ গ্রেফতার সেই তিন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর রিমান্ড মঞ্জুর

বিশেষ পদ্ধতিতে তৈরি গাঁজার কেকসহ গ্রেফতার তিন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। ওই তিন শিক্ষার্থীরা হলেন- কাফিল ওয়ারা রাফিদ, কাজী রিসালাত হোসেন ও সাইফুল ইসলাম সাইফ। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর রহমান রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে, গতকাল বুধবার (৯ জুন) সন্ধ্যায় রাজধানীর মোহাম্মদপুর ও পল্টন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করেন গোয়েন্দা পুলিশের রমনা জোনাল টিমের সদস্যরা।

রিমান্ড মঞ্জুর হওয়া ওই তিনজনের মধ্যে কাফিল আমেরিকান ইন্টরন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (এআইইউবি)-তে কম্পিউন্টার সায়েন্স, রিসালাত ধানমন্ডির অ্যাডভান্সড প্রফেশনালস-এর এসিসিএ ও সাইফ ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ-ইউডার চারুকলায় পড়াশোনা করছে।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের রমনা জোনাল টিমের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জুলহাস উদ্দিন তাদের আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। রিমান্ডে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন মোহাম্মদপুর থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা এসআই মনিরুজ্জামান মণ্ডল। অপরদিকে আসামিপক্ষে রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিন চেয়ে আবেদন করেন আইনজীবী সামিয়া আরা মিনা ও আবু সায়েম। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের দুইদিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তারা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন রাজধানীতে একাধিক চক্র গাঁজার নির্যাস দিয়ে কেক বানিয়ে মাদকসেবীদের কাছে বিক্রি করে আসছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে তারা গত বুধবার বিকেলে মোহাম্মদপুরের শাহাজাহান রোডের একটি জায়গা থেকে প্রথমে রাফিদ ও সাইফকে আটক করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রায় ১৮টি গাঁজার কেক পাওয়া যায়। তারা সেগুলো ডেলিভারি দিতে যাচ্ছিলেন। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পল্টন এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে রিসালাত হোসেনকে ১২ পিস গাঁজার কেকসহ আটক করা হয়।


আরও পড়ুন>>


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা তিনজনই মাদকাসক্ত বলে স্বীকার করেন। অন্যান্য মাদকের পাশাপাশি তারা নিয়মিত গাঁজা সেবন করে আসছেন। বছর দেড়েক আগে ইউটিউবে দেখে তারা গাঁজার কেক বানানো শিখেছেন। প্রথমে নিজেরা খেলেও পরে বন্ধুদের মধ্যেও এর ব্যপক চাহিদা তৈরি হয়। ব্যবসাটা শুরু করে তখনই। এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য আইনে মোহাম্মদপুর থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের রমনা জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মিশু বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতারকৃত তিনজনই মাদকাসক্ত। এদের দুজন নিজ নিজ বাসায় গাঁজার নির্যাস দিয়ে কেক তৈরি করে বিক্রি করতো। একজন এসব কেক ডেলিভারি করতো।

- Advertisement -

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ

Bengali Bengali English English German German Italian Italian
%d bloggers like this: