গোয়ালন্দে নিখোঁজের ৩ দিন পর বালি খুঁড়ে পাওয়া গেল ইমামের লাশ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে নিখোঁজের ৪ দিন পর গতকাল সোমবার দুপুরে নাসির ইসলাম নয়ন (২০) নামে এক যুবকের লশ উদ্ধার করা হয়েছে।

সে উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের দুদুখান পাড়ার শাহজাহান শেখের ছেলে। তাকে মাথার পিছনে আঘাত করে হত্যা করা হয় বলে ধারনা করা হচ্ছে। হত্যার পর দূবৃত্তরা লাশ পাশ্ববর্তী মঙ্গলপুর গ্রামের মশিউর রহমান নামে এক ব্যাক্তির নির্মানাধীন বাড়ির পিছনে বালির নিচে পুতে রেখেছিল।

নিহত নয়ন ঢাকার কেরানীগঞ্জে গার্মেন্টসে কাজ করতো। গত ১৩ এপ্রিল সে বাড়িতে আসে।এরপর লকডাউন শুরু হলে আর ফিরে যায় নি। নিহতের মেজ মামা হাফেজ কামরুল ইসলাম জানান, তিনি পাশ্ববর্তী এলাকার একটি মসজিদে ইমামতি করেন। গত শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে মোবাইল ফোনে নয়নের সাথে তার সর্বশেষ কথা হয়। নয়ন তখনো বাড়িতে ফেরেনি। আমাকে জানায় দ্রুত বাড়ি ফিরবে। সে দুদুখান পাড়াতেই আমাদের বাড়িতে থাকতো। সারারাত বাড়ি না ফেরায় শনিবার সকালে আমরা থানায় গিয়ে বিষয়টি পুলিশকে অবগত করি।


আরও পড়ুন>>


ওইদিন সকালে মশিউর রহমানের তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সরেজমিন এসে তার নির্মানাধীন বাড়িতে যায়। সেখানে ঘরের মধ্যে ছিটা-ফোটা রক্ত, সিমেন্ট ছিটানো ও মানুষের পায়ের ছাপ দেখতে পাওয়া পায়। কিন্তু লনশের বিষয়ে পুলিশ কিংবা আমরা কেউ কিছু বুঝতে পারিনি। অদ্য মঙ্গলবার দুপুরে দূর্গন্ধ ছড়ালে এলাকার এক যুবক সন্দেহ করে তাদের খবর দেয়। আমরা ঘটনাস্থলে. এসে আলগা মাটি পরিক্ষা করে লাশের বিষয়ে নিশ্চিত হই। এরপর থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে । খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শরিফ উজ জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। হত্যাকান্ডের বিষয়ে এখনো কোন কিছু জানা যায় নি। তবে আমরা ঘটনার রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি।

- Advertisement -

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ

Bengali Bengali English English German German Italian Italian
%d bloggers like this: