ছাত্রলীগের টেন্ডারবাজ নেতাদের আটক করেও ছেড়ে দিল পুলিশ

কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ টেন্ডারবাজীর অভিযোগে ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সহ ৪ জন যুবককে আটক করে রৌমারী থানা পুলিশ। ৪ঘন্টা পর অদৃশ্য ইশারায় ছেড়েও দেয়া হয়।

এ বিষয়ে রৌমারী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ নাজমুল হুদার সংগে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন ও ছেড়ে দেয়ায় তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান।তবে কাদের চাপে এ অবস্থার সৃষ্টি তা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

রৌমারী থানার এস আই আব্দুল মতিন জানান, ভারপ্রাপ্ত কর্মিকর্তার নির্দেশে তিনি ফোর্স সহ হাসপাতালে যান গিয়ে দেখেন কতিপয় যুবক হাসপাতালে উচ্চ স্বরে বাকবিতণ্ডা করছে।তিনি তাদের হাসপাতাল চত্বর ছেড়ে যেতে বললে তারা পুলিশের সংগেও অসৌজন্যমুলক আচরণ করে। এ বিষয় তাৎক্ষণিক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে জানিয়ে মারুফ আহমেদ সীপ্ত, মাহাতাব, সাদেকুল, ফরহাদকে থানায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু মোঃ দিলওয়ার হাসান ইনাম প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃজাকির হোসেন ও উর্ধতন কর্তপক্ষের সাথে কথা বলে বিকেল ৪.৩০ ঘটিকায় আটককৃতদের ছেড়ে দেয়।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে অভিযোগ করা হয় দরপত্র বাতিল হওয়ার পর ও একদল যুবক জোরপূর্বক কাজ দেয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে। হাসপাতাল কতৃপক্ষের নিরাপত্তার স্বার্থে ঘটনা স্থল থেকে চার জনকেয়াটক করে থানা পুলিশ। কিন্তু স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে লিখিত অভিযোগ না দেয়ায় বিষয়টি উর্ধতন কতৃপক্ষকে অবহিত করা হয়।আটক চার জন অপরাধ না করায় তাদের কাছে মুচলেকা নিয়ে আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তাফিজার রহমান রবিন এর জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।

রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোমেনুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে রোগীদের খাদ্য সরবরাহ, ষ্টেশনারী মালামাল ও কাপড় ধোয়ার জন্য দরপত্র আহবান করা হয় গত ৩১ আগষ্ট/২০ ইং।এরপর ২৯ সেপ্টেম্বর তারিখে তা খোলা হয়, মূল্যায়ন করা হয় ২০ অক্টোবর। এতে তিন গ্রুপের ৯টি দরপত্র যাচাই বাছাই করে ৮টি বাতিল করা হয়। শুধুমাত্র ষ্টেশনারী সরবরাহ গ্রুপে একটি দরপত্র বৈধ হয়। ফলে দুটি গ্রুপে নতুন করে দরপত্র আহবানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ খবর জানতে পেরে এক পক্ষ ক্ষিপ্ত হয়ে চাপ সৃষ্টি করে তাদেরকেই কাজ দেয়ার জন্য। ওই দিনই স্বাস্রহ্য কমপ্লেক্স এর কর্মকর্তা গণ উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন তাদের নিরাপত্তা হীনতার কথা।তারা ২১ অক্টোবর সকালে আবারও বাতিলকৃত দরপত্রের বিপরীত এ কাজ দেয়ার জন্য চাপ ও হুমকি দিতে থাকলে তারা পুলিশকে খবর দেয়।পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এবং চারজনকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এর বেশী কিছু জানাতে তিনি অস্বীকার করেন।

কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন কর্মকর্তা ডাঃ হাবিবুর রহমান বলেন, রৌমারীর ঘটনা দুঃখজনক। অভিযুক্তদের পুলিশ আটক করেছে ঘটনাস্থল থেকে। পরে জেনেছি মুচিলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। ঘটনা জানার পর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে স্থানীয় সাংসদ ও প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের সংগে কথা বলে পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় মারুফ আহমেদ সীপ্ত রৌমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, আর জিম্মা গ্রহনকারী মোস্তাফিজার রহমান রবিন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক। দু’জনে আপন ভাই। একই সংগে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন এম পির চাচাত ভাই। ফলে এলাকার কেউ তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায়না।বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা গন নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন।

এ বিষয়ে কথা বলা জন্য অভিযুক্ত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মারুফ আহমেদ সীপ্ত’র মুঠোফোনে কল করে তা বন্ধ থাকায় তা সম্ভব হয়নি।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

মরেও শান্তি নেই নারীর: গণসমাবেশে নারী সংগঠনের নেত্রীরা

নারীর ওপর ক্রমবর্ধমান সহিংসতা-ধর্ষণ, নির্যাতন ও বিচারহীনতার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নারী সংগঠনের নেত্রীরা। তারা বলেছেন, মরেও নারীর শান্তি নেই। হাসপাতালের মর্গে গিয়েও শান্তি...

আশুলিয়ায় ‘ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা’ নারী শ্রমিকের

ঢাকার আশুলিয়ায় পোশাক কারখানার ‘সাততলার ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে’ এক নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আশুলিয়া থানার এসআই আল মামুন কবির জানান, শুক্রবার বিকালে কাঠগড়ার...

লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইসমাইলের বিরুদ্ধে মাছ লুটের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরে ইসমাইল নামে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে একটি খামার থেকে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার মাছ লুটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর)...

করোনা বলে আর কিছু নেই, তাই ভ্যাকসিনেরও প্রয়োজন নেই! বিজ্ঞানীর বিস্ফোরক দাবি

''ভ্যাকসিন নিয়ে এমন হাহাকার আমি আগে দেখিনি। যেন এই ভ্যাকসিন না পেলে পৃথিবী ধংস হয়ে যাবে। আদলে তো সেরকম কোনো ব্যাপার নেই। এখন করোনা...
%d bloggers like this: