জবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচন ঘিরে সরব নীল দলের দুই গ্রুপ

- Advertisement -

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নির্বাচন ঘরে সরব প্রার্থীরা। এবারও নীল দলের দুই গ্রুপ বিভক্ত হয়ে নির্বাচন করছেন। নির্বাচন ঘিরে প্রার্থীরা শিক্ষকদের কাছে নিজেদের ইশতেহার তুলে ধরছেন।

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) দু’পক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনের ইশতেহার ঘোষণা করেন। আগামী ৮ নভেম্বর শিক্ষক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনে নীল দলের (আবুল হোসেন-কামাল) প্যানেল থেকে সভাপতি পদে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মো. লুৎফর রহমান নির্বাচন করছেন।

অন্যান্য পদের মধ্যে সহসভাপতি পদে পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ছিদ্দিকুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ পদে অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আবদুল মান্নান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হাফিজুল ইসলাম।

সদস্য পদে গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল করিম, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান খান, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল কাদের, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সিদ্ধার্থ ভৌমিক, ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মুসাররাত শামীম, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. মিরাজ হোসেন, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ. এম. এম. গোলাম আদম, দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ফরহাদ আহমেদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নিবেদিতা রায়, মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শামীমা আক্তার।

নীল দলের (জাকারিয়া-মোস্তফা) প্যানেল থেকে সভাপতি পদে পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক মো. আশরাফুল আলম ও সাধারন সম্পাদক পদে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন নির্বাচন করছেন।

অন্যান্য পদের মধ্যে সহসভাপতি পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. শামছুন নাহার, কোষাধ্যক্ষ পদে ফার্মেসি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সুকুমার বেপারী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. জি. এম আল-আমীন।

সদস্য পদে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. নূরে আলম আব্দুল্লাহ, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নিগার সুলতানা, ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আবদুস সামাদ, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম, লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শামীমা আক্তার, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ তাসফিক, ফিন্যান্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ আলমগীর হোসেন, প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. রুমানা তাছমীন, আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মেফতাহুল হাসান, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রভাষক সানজিদা আক্তার তান্নি।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সুরঞ্জন কুমার দাস বলেন, আগামী ৮ তারিখ শিক্ষক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। করোনার কারণে দীর্ঘদিন পর নির্বাচন হতে যাচ্ছে। দুই পক্ষই প্রচারণায় ব্যস্ত। এখন পর্যন্ত কারও কোনো অভিযোগ নেই।

ভোটার তালিকার বিষয়ে তিনি বলেন, সর্বশেষ সিন্ডিকেট সভা অনুযায়ী যে সকল শিক্ষকদের নামের তালিকা প্রকাশ হয়েছে, তারাই ভোট দিতে পারবে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ