জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের জন্য মিশন খুলবে না যুক্তরাষ্ট্র: ইসরায়েল

- Advertisement -

জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের জন্য মার্কিন কূটনৈতিক মিশন খোলার পরিকল্পনা শিকেয় তুলেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন।

রোববার (২৪ অক্টোবর) ইসরায়েলের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইদান রোল এমন দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ইসরায়েলের বিরোধিতার কারণে যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, জেরুজালেমের কনস্যুলেট মার্কিন দূতাবাসের সঙ্গে একীভূত করে নেওয়া হয়েছে।

২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে ইসরায়েলে মার্কিন দূতাবাস তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তকে ইসরায়েল স্বাগত জানালেও ফিলিস্তিনিরা তীব্র বিরোধিতা করেছেন। চলতি মাসে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকিন বলেছেন, ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সম্পর্ক মেরামতে জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্রের মিশন খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

কিন্তু ইদান রোল বলেন, আমি মনে করি, এমনটা না ঘটার পক্ষে আমাদের কাছে যথেষ্ট ভালো যুক্তি রয়েছে। ইসরায়েলের রাজনৈতিক জটিলতা আমেরিকানরা বুঝতে পারবেন। দুদেশের মধ্যে ভালো সম্পর্ক রয়েছে। আমরা তাদের অবাক করে দিতে চাই না। বরং তারাই আমাদের চমক দেখাবে বলে মনে করি।

এ নিয়ে মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্রের বক্তব্য জানতে চাইলে কোনো সাড়া মেলেনি। জেরুজালেমকে নিজেদের অখণ্ড রাজধানী দাবি করে আসছে ইসরায়েল। কাজেই সেখানে ফিলিস্তিনিদের জন্য মিশন খোলায় দখলদার দেশটি সায় দেবে না।

কিন্তু শহরটির পূর্বাংশ নিয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করতে চায় ফিলিস্তিনিরা। জেরুজালেমে মার্কিন মিশন খুললে ইসরায়েলের জাতীয়তাবাদী প্রধানমন্ত্রীর নাফতালি বেনেতের অবস্থান দুর্বল হয়ে পড়বে। এতে দেশটির ক্ষমতাসীন জোট সরকারে ভাঙন দেখাও দিতে পারে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ