তালেবানের সঙ্গে ট্রাম্পের চুক্তি নিয়ে কি ভাবছেন বাইডেন?

আফগান সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের সঙ্গে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের করা শান্তি চুক্তি পুনর্বিবেচনা করবে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসন।

হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, বাইডেনের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেইক সুলিভান এরই মধ্যে আফগান কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। খবর বিবিসির।

গত বছরের ২৯ ফেব্রুয়ারি কাতারের রাজধানী দোহায় শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের পর মার্কিন সরকার ঘোষণা করে, তালেবান এই চুক্তিতে অটল থাকলে আমেরিকা ও তার ন্যাটো মিত্ররা আফগানিস্তান থেকে পরবর্তী ১৪ মাসের মধ্যে সেনা প্রত্যাহার করে নেবে।

এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষমতার পালাবদল হয়েছে। প্রেসিডেন্ট হিসাবে দায়িত্বগ্রহণ করেছেন বাইডেন।
নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুলিভান জানিয়েছেন, নতুন প্রেসিডেন্ট তালেবানের সঙ্গে ওয়াশিংটনের করা চুক্তি খতিয়ে দেখতে চান।


আরও পড়ুন>>


এর আগে জো বাইডেন মনোনীত পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনও মার্কিন সিনেটকে জানিয়েছিলেন, বাইডেন প্রশাসন তালেবানের সঙ্গে ট্রাম্পের করা চুক্তি পর্যালোচনা ও পুনর্মূল্যায়ন করতে চায়।

আফগান সরকার ও তালেবানের ঘনিষ্ট সূত্রগুলোও জানিয়েছিল, তারা নিজেদের মধ্যে শান্তি চুক্তি সই করার আগে তালেবানের সঙ্গে গত বছর ট্রাম্প প্রশাসনের করা শান্তি চুক্তির ব্যাপারে বাইডেনের দৃষ্টিভঙ্গি জানতে চান।

বাইডেন প্রশাসন এমন সময় শান্তি চুক্তি পুনর্মূল্যায়নের ঘোষণা দিল যখন ওই চুক্তির ভিত্তিতে আফগান কারাগার থেকে পাঁচ হাজার বন্দিকে এরই মধ্যে মুক্তি দিয়ে ফেলেছে।

আফগান সরকারের সঙ্গে সরাসরি আলোচনার জন্য এমন শর্ত বেঁধে দিয়েছিল তালেবান। এর ভিত্তিতে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর থেকে দোহায় দুই পক্ষের আলোচনা শুরু হলেও এখনো কোনো সমাধানে পৌঁছানো যায়নি।

আফগান সরকারের দাবি, মুক্তিপ্রাপ্ত তালেবান বন্দিদের অনেকেই আবার যুদ্ধের ময়দানে ফিরে গেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তির কারণে সংগঠনটি আন্তর্জাতিক বাহিনীর ওপর হামলা বন্ধ করলেও সরকারের বিরুদ্ধে তাদের লড়াই অব্যাহত রেখেছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: