তোমার পর্ন-ব্যবসার জন্য পরিবারের নাম খারাপ হল! রাজকে দেখেই চিৎকার শিল্পার

ছ’ঘণ্টা তল্লাশি চলেছে রাজ কুন্দ্রা ও শিল্পা শেট্টির জুহুর বাড়িতে। গ্রেফতার হওয়ার পর প্রথম বার নিজের স্বামীকে দেখে নিজেকে সামলাতে পারেননি শিল্পা। রাগে, দুঃখে ফেটে পড়েন তিনি। এমনটাই জানা গেল পুলিশ সূত্রে। সেই দিন শিল্পা ও রাজের মধ্যে কী কথোপকথন হয়েছিল, তা মঙ্গলবার সন্ধের পর সম্পূর্ণ রূপে প্রকাশ পেল। সূত্রের দাবি, শিল্পা রাজকে দেখেই চিৎকার করে বলেন, ‘‘তোমার পর্ন ব্যবসার জন্য পরিবারের নাম খারাপ হচ্ছে!’’ রাজ তার উত্তরে জবাব দেন, ‘‘আমি পর্ন বানাইনি। সবই যৌন উদ্দীপক ছবি।’’ কিন্তু শিল্পা তাতেই শান্ত হননি। তিনি কাঁদতে কাঁদতে বলতে থাকেন, ‘‘সবই তো ছিল আমাদের কাছে। কী দরকার ছিল এ সব করার?’’ তাঁদের আর্থিক এবং পেশাগত ক্ষতির জন্য অভিনেত্রী তাঁর স্বামীকে দায়ী করতে থাকেন পুলিশের সামনেই।

পর্ন-কাণ্ডে শিল্পাকে ইতিমধ্যে দু’বার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত রাজ-পত্নীর বিরুদ্ধে কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। জাতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের পরে শিল্পা খুবই ভেঙে পড়েছিলেন। তার পরে স্বামীর সঙ্গে তাঁর ব্যাপক তর্ক চলে। যেখানে শিল্পা চিৎকার করতে থাকেন। অভিনেত্রীকে শান্ত করার জন্য অপরাধ দমন শাখার আধিকারিকদের দম্পতির কথার মধ্যে হস্তক্ষেপ করতে হয়।


আরও পড়ুন>>


এরই মাঝে অভিনেত্রীর ফোনের ক্লোনিং করার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। তার পরেই দ্বিতীয় বার জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য তাঁকে তলব করতে পারে মুম্বই পুলিশ। ফোন ক্লোন করার অর্থ, শিল্পার ফোনের সব তথ্য চলে আসবে তদন্তকারীদের হাতে। সেই সঙ্গে শিল্পার ফোনে কোনও গোপন নথি রয়েছে কি না, কিংবা তাঁর ফোন থেকে গত কয়েক মাসে কোন কোন তথ্য মুছে ফেলা হয়েছে, তা-ও তদন্ত করে দেখতে চান গোয়েন্দারা। অর্থাৎ শুধু রাজই নন, তদন্তকারীরা যে শিল্পাকেও সহজে ছাড়তে চাইছেন না, তা এক প্রকার স্পষ্ট গোয়েন্দাদের বক্তব্য থেকে। সূত্র: আনন্দবাজার

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ