দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে ১৪ কিশোরীকে উদ্ধার করলো পুলিশ

দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে চাকরির দেওয়ার কথা বলে এনে অন্যতম যৌনপল্লী দৌলতদিয়ায় বিক্রি করে দেওয়া ১৪ কিশোরী কে উদ্ধার করেছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থানা পুলিশ।

২০ জানুয়ারি বুধবার দুপুরে নিজ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এম এস শাকিলুজ্জামান এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার বলেন , এক মাস আগে গ্রাম থেকে চাকরির কথা বলে একটি প্রতারক চক্র উদ্ধার হওয়া ১৪ কিশোরীকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লিতে নিয়ে আসে। এখানে এনে তাদেরকে অন্ধকার ঘরে আটকে রেখে নির্যাতন চালায়। উদ্ধার হওয়া কিশোরীদের মধ্যে একজন কৌশলে মঙ্গলবার রাতে যৌনপল্লিতে যাওয়া এক খদ্দেরের মোবাইল ফোন থেকে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পাচার হওয়ার বিষয়টি জানালে পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে নাজমা বাড়িওয়ালীর বাড়ি থেকে প্রথমে তিন কিশোরীকে উদ্ধার করে।


আরও পড়ুন>>


এরপর উদ্ধার হওয়া তিন কিশোরীর তথ্যমতে একটি অন্ধকারাচ্ছন্ন গোডাউনে অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে আরও ১১ জন কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত কিশোরীদের আদালতে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার।

উদ্ধার হওয়া কিশোরীদের মধ্যে রংপুর জেলার ২ জন, ঢাকার মিরপুর-১১ এর ২ জন, জামালপুর, বরিশাল, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, সিলেট, সাতক্ষীরা, চট্রগ্রাম, রাজবাড়ী, নওগাঁ ও কুমিল্লার ১ জন করে রয়েছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: