ধরাছোঁয়ার বাইরে ইলন মাস্ক!

- Advertisement -

লাগামহীনভাবে বাড়ছে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্কের সম্পদের পরিমাণ। মার্কিন বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা ও মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেসএক্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্কের সম্পদের পরিমাণ এখন ২৩ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। আরও দুই ধনকুবের বিল গেটস ও ওয়ানের বাফেটের সম্পদ এক করলে যা হয়, প্রায় সেই অর্থের সমান।

ব্লুমবার্গের বিলিয়নিয়ার ইনডেক্স অনুযায়ী, মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সম্পদের পরিমাণ ১৩ হাজার কোটি ডলার এবং ব্যবসায়ী ওয়ারেন বাফেটের সম্পদের পরিমাণ ১০ হাজার ২০০ কোটি ডলার। এছাড়া ধনীর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ই-কমার্স জায়ান্ট আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ব্লু অরিজিনের মালিক জেফ বেজোসের সম্পদের পরিমাণ ১৯ হাজার ১০০ কোটি ডলার।

ব্লুমবার্গের বিলিয়নিয়ার ইনডেক্স অনুযায়ী, বিল গেটসের অবস্থান চার এবং ওয়ারেন বাফেট রয়েছেন দশম অবস্থানে।

চলতি বছরই মাস্কের সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে ৬ হাজার কোটি ডলার। ভূমিকা রেখেছে টেসলা ও স্পেসএক্সের শেয়ারের দর। স্পেসএক্স কোম্পানির মূল্যমান এখন ১০ হাজার কোটি ডলার।

অবশ্য গেটস ও বাফেটের সম্পদের পরিমাণে মাস্কের কাছাকাছিই থাকত, তবে দুজনই জনকল্যাণমূলক কাজের জন্য প্রশংসিত। দুজনই বছরের পর বছর ধরে কোটি কোটি ডলার জনকল্যাণে ব্যয় করেছেন।

অন্যদিকে দানশীল হিসেবে তেমন সুনাম নেই মাস্কের। চলতি বছর ১৫ কোটি ডলার দানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মাস্ক, যা এ পর্যন্ত তার সবচেয়ে বড় অনুদান। এ অর্থের দুই-তৃতীয়াংশ কার্বন অপসারণ প্রতিযোগিতার বিজয়ীকে দেওয়া হবে।

বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী জেফ বেজোসের সম্পদ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ১০০ কোটি ডলারে। ই-কমার্স জায়ান্ট আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও মহাকাশ সংস্থা ব্লু অরিজিনের প্রধান তিনি। ইলন মাস্কের সাথে সম্পদের ব্যবধানও দ্রুত গতিতে বেড়ে চলেছে জেফ বেজোসের।

সিএনবিসির খবরে বলা হয়, গত মাসে বেজোসকে পেছনে ফেলে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় দ্বিতীয়বারের মতো উঠে আসেন ইলন মাস্ক। এর আগে এ করোনাকালেই প্রথম দফায় ইলনকে পেছনে ফেলে তার আসনটি দখল করেছিলেন বেজোস। তার আগে প্রথমবারের মতো শীর্ষ ধনীর আসনে বসেন ইলন মাস্ক।

এ দুই ধনকুবেরের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা তীব্র হয়েছে অবশ্য চলতি বছরেই। সম্প্রতি বেজোসের ব্লু অরিজিন মার্কিন সরকারের বিরুদ্ধে স্পেসএক্সের সঙ্গে নাসার ২৯০ কোটি ডলারের চুক্তি নিয়ে একটি মামলা করে। এতে দুই ধনকুবেরের সম্পর্কের তিক্ততা বেড়েছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ