নানা আয়োজনে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপিত

- Advertisement -

দেশের বিভিন্ন স্থানে নানা আয়োজনে উদযাপিত হয়েছে সশস্ত্র বাহিনী দিবস। রংপুর, যশোর, কুমিল্লা, সিলেট ও টাঙ্গাইল সেনানিবাসে কুচকাওয়াজ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়।

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা নেতৃত্বের প্রতি পূর্ণ অনুগত থেকে কঠোর অনুশীলন ও দেশপ্রেমে এই দিনে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে। দেশের বিভিন্ন জেলার সেনানিবাসে তাই যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয় সশস্ত্র বাহিনী দিবস ২০২১।

রংপুর সেনানিবাসে রোববার উদযাপিত হয় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও ৫০তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস। সেনানিবাস অডিটোরিয়ামে ছিল দেশাত্মবোধক গান, নাচ আর নানা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এর আগে দিবসটি উপলক্ষে শহরে শোভাযাত্রা বের করেন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যরা।

যশোর অঞ্চলে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মো. নুরুল আনোয়ার। এরপর যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের পরিবারবর্গের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সবশেষে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আর ডিসপ্লে প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপিত হয় সিলেট সেনানিবাসেও। অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের উন্নয়নে সশস্ত্র বাহিনীর নিরলস প্রচেষ্টার কথা ও দেশের সুনাম বৃদ্ধিতে সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্যের কঠোর আত্মত্যাগের চিত্র তুলে ধরেন। এরপর মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক পরিবেশনার আয়োজন করা হয়।

কুমিল্লায় কেক কেটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপন করা হয়। কুমিল্লা সেনানিবাসের বর্ণাঢ্য আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবার, সাবেক সেনা কর্মকর্তা, বিভিন্ন সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধে সেনাবাহিনীর অবদানের কথা স্মরণ করেন।

এছাড়া, টাঙ্গাইল ও কক্সবাজারেও নানা আয়োজনে উদযাপিত হয় সশস্ত্র বাহিনী দিবস ২০২১।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ