ন্যাটোর গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন ফিনল্যান্ড-সুইডেন: মার্কিন সিনেটর

- Advertisement -

মার্কিন সিনেটের সংখ্যালঘু নেতা মিচ ম্যাককনেল বলেছেন, সুইডেন ও ফিনল্যান্ড ন্যাটোতে ‘গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন’ হবে।

রাশিয়ার সামরিক অভিযানের বিরুদ্ধে সমর্থন প্রদর্শনে রিপাবলিকান সিনেটরদের একটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ম্যাককনেল।

ম্যাককনেল ইউক্রেন আক্রমণের জন্য রাশিয়াকে ‘জঙ্গি রাষ্ট্র’ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকেও আহ্বান জানিয়েছেন।

সুইডেনের স্টকহোম থেকে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ম্যাককনেল বলেন, ফিনল্যান্ড ও সুইডেন যোগ দিলে তা ন্যাটোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন হবে। আমি মনে করি, দেশ দুটির ন্যাটোর যোগদানের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রথম সারিতে থাকা উচিত।

প্রসঙ্গত, রাশিয়ার হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে ন্যাটোতে যোগ দিতে আবেদন করতে যাচ্ছে ফিনল্যান্ড ও সুইডেন। আনুষ্ঠানিকভাবে ন্যাটোতে যোগদানের আগ্রহের কথা জানিয়েছে তারা।

সোমবার (১৬ মে) তাদের ন্যাটোতে যোগদানের আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে। সুইডেনও দুই শতকের বেশি সময় ধরে সামরিকভাবে নিরপেক্ষ থাকার নীতি মেনে চলেছে।

নিরপেক্ষতার নীতিতে অটল থাকা এ দুই দেশের এত দিন কোনো আগ্রহ ছিল না ন্যাটোর পূর্ণ সদস্যপদ নিয়ে। তবে ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতি পাল্টে দিয়েছে। ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার পক্ষে দেশ দুটির জনগণের এবং রাজনৈতিক সমর্থন বেড়েছে।

ন্যাটো সদস্যপদ পেতে এর ৩০ সদস্যের সবার অনুমোদন প্রয়োজন। নিরপেক্ষতার নীতি বদলে ফেলে ফিনল্যান্ড ও সুইডেন ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করায় যুক্তরাজ্যসহ ন্যাটোর অনেক সদস্যদেশ বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছে। তবে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের নেটো সদস্য হওয়া নিয়ে আপত্তি তুলেছেন।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ