নড়াইলে নির্বাচনী সহিংসতা পাল্টাপাল্টি অফিস,প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাংচুরের অভিযোগ॥ থানায় মামলা

- Advertisement -

নড়াইলের আউড়িয়া ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বতন্ত্র ও নৌকা প্রতিকের প্রাথীর বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি অফিস ও প্রচার মাইক ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (৩ নভেম্বর) রাতে দু’পক্ষের অফিস ও প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাংচুরের অভিযোগ ওঠে।

জানা গেছে, বুধবার (৩ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নির্বাচনী প্রচার শেষে আউড়িয়া ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর এলাকা থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন নৌকা প্রতিকের প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাংচুর করে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর থানায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আকরাম হোসেন ভূঁইয়াসহ ২৮জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলা হয়েছে। ইজিবাইকটি জব্দ করে সদর থানায় রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নৌকা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক, নৌকা প্রতিকের প্রার্থী এস.এম পলাশকে একাধিকবার ফোন করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

তবে আউড়িয়া ইউনিয়ন আ’লীগ সদস্য, স্বদ্য বহিস্কৃত ইউনিয়ন আ’লীগ সদস্য আকরাম হোসেন ভূঁইয়া বলেন, বুধবার (৩ নভেম্বর) রাতে নৌকা প্রতিকের লোকজন দত্তপাড়া ভাটার সামনে আমার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করেছে। এর আগে গত ২৮ অক্টোবর নাকসি এলাকা থেকে দিনে দুপুরে আমার নির্বাচনী প্রচার ভ্যান রাস্তার পার্শ্বে গর্তে ফেলে দেয় এবং দু’জনকে মারধর করে। এ ঘটনায় সদর থানায় ২জন হামলাকারীর বিরুদ্ধে একটি মামলাও হয়েছে। এখন নিজেরা প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাংচুরের নাটক ও আমার বিরুদ্ধে মামলা করে হাজতে রেখে নির্বাচনে বিজয়লাভের নকশা সাজাচ্ছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি শওকত কবির বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস এবং নৌকার প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে নৌকা প্রতিকের প্রচার ও ইজিবাই ভাংচুরের ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ২৮জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এসব ঘটনার সঠিক তদন্ত করা হবে বলে তিনি জানান।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ