পঞ্চগড়ে যাতাযাতের রাস্তা নিয়ে বিরোধ, ঘরছাড়া মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

- Advertisement -

পঞ্চগড় সদর উপজেলায় যাতাযাতের রাস্তা নিয়ে দুই পক্ষের বিরোধে ঘরছাড়া হয়েছে এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবার। এনিয়ে দু,পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনাটি পঞ্চগড় সদর উপজেলার গড়িনাবাড়ি ইউনিয়নের বামুন পাড়ায় ঘটে। ওই ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির আলী রাস্তা নিয়ে দুপক্ষের মধ‌্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে ।

উপজেলার বামুনপাড়া গ্রামের জহির আলী বীরমুক্তিযোদ্ধার পুত্র রেজাউল করিম লাবলু (৩২) দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা যায় , যাতাযাতের রাস্তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। ১৯ সেপ্টেম্বর রোববার চলাচলের রাস্তাটি প্রকৃত মালিক শুকুর আলীর কাছ থেকে রেজিষ্ট্রি করে নেওয়ার খবরে বিকালে দলবল লাঠিসোটা নিয়ে মোতালেব ও আনোয়ার বাড়ির সামনে বেআইনিভাবে জহির আলী বীরমুক্তিযোদ্ধার উপর হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো ছোরা দিয়ে হামলা চালায়। মুক্তিযোদ্ধা প্রাণে বেচেঁ গেলেও হাড়কাটা জখম হয়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার মাথার উপরিভাগে ৩ টি সেলাই করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাকে বাঁচাতে বাড়ির লোকজন বেরিয়ে আসলে তাদেরকেও বেধরম মারপিট করে, আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেয় আরো ছয় জন। এঘটনায় পরেরদিন ২২জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করে।

সংঘর্ষের ঘটনায় মোতালেব হোসেন, জহির আলী মুক্তিযোদ্ধা সরকারি চাকুরিতে কর্মরত তার দুই পুত্র ও দুইজন নাবালক ছেলে- মেয়েসহ ১৬ জনকে বিবাদী করে আদালতে মামলা দায়ের করে। এ মামলায় এখন ঘরছাড়া মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

জহির আলী বীরমুক্তিযোদ্ধা আক্ষেপ করে বলেন যাতাযাতের রাস্তাও আমার মাথাও কাটলো আমার, আবার আমিই ঘরে থাকতে পারছিনা। কর্তৃপক্ষের নিকট দ্রুত সঠিক তদন্ত করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান।

পঞ্চগড় সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বেনজির আহাম্মেদ বলেন, রাস্তা নিয়ে বিরোধের ঘটনায় উভয়পক্ষেই মামলা করেছে। তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ