পঞ্চগড়ে শৈত্যপ্রবাহের সাথে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতে

রাশেদুজ্জামান রাশেদ, পঞ্চগড় প্রতিনিধি।।

দেশের সর্ব উত্তরের সীমান্ত হিমালয় কন্যা প্রান্তিক জেলা পঞ্চগড়। বেশকয়েক দিন ধরে এ জেলায় শীতের প্রকোপ চলেছে উত্তরের হিমেল হাওয়া, মৃদু শৈত্যপ্রবাহ পাল্লা দিয়ে বাড়ছে হারকাপাঁনো শীত ও ঘন কুয়াশা । যা বয়ে যাচ্ছে উত্তরের হিমেল হাওয়া এবং কুয়াশার নতুন চাদরে ঢাকতে শুরু করেছে দেশের সীমান্ত জেলা সারা পঞ্চগড়ে। সকালে ঠান্ডার প্রকোপ বেশি অনুভব হলে কয়েক দিন সূর্যের মূখ দর্শণ হয় না এ জেলায়। উত্তরের হিমালয়ের হিমেল শৈত্যপ্রবাহর সাথে ঘোন কুয়াশা প্রবাহিত থাকায় বিপর্যয়ে পড়েছে জেলার সাধারণ জনজীবন।

এদিকে দুপুর ১টা হলেও ঘন কোয়াশার কারণে সূর্যের দেখা মিলে নাই।

পঞ্চগড় জেলার আবাহাওয়া অফিস তেতুলিয়া উপজেলার সূত্রে জানা যায়, সারাদেশের মধ্যে বুধবার তেতুলিয়ায় ভোর ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শীতের মৌসুমের এখন পর্যন্ত সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করে আবাহাওয়া অফিস।


আরও পড়ুন>>


উপজেলা আবাহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সানিউজজ্জামান তিনি জানান, তেতুলিয়া আবাহাওয়া অফিসে বুধবার ভোর ৬টার সময় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং গত মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তিনি আরও জানান ডিসেম্বরের মাঝামাঝি শৈত্যপ্রবাহের সাথে তাপমাত্রা আরও নিচে নামতে পারে এ অঞ্চলে। প্রকোপ শৈত্যপ্রবাহ এবং হাড়কাপানো শীতের কারণে সাধারণ জনজীবনে নেমে এসেছে চড়ম দুর্ভোগ।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: