প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অবাক কাণ্ড ঘটালেন যুবক

২১ বছরের তরুণীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিলেন এক ২৬ বছরের এক যুবক। কিন্তু ওই নারী প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন। আর তাই প্রতিশোধ নিতে তরুণীর বাড়িতে ই-কমার্স ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ‘সেক্স টয়’ পাঠাতে থাকে। শুধু তাই নয়, তরুণীর মোবাইল নম্বর পর্নো সাইটে আপলোড করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে। ঘটনার মাসখানেক পর অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্তের নাম কুণাল অঙ্গলকার।

পুলিশ জানিয়েছে, কুণাল অঙ্গলকার নামে যুবকটি ওই তরুণীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে সাড়া পায়নি। তাই মাসখানেক ধরেই ওই তরুণীর বাড়িতে ‘সেক্স টয়’ পাঠাচ্ছেন কুণাল। ই-কমার্স সাইট থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারি পদ্ধতিতে তরুণীর বাড়িতে সেগুলো পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ওই তরুণী প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পর থেকেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বাড়িতে ‘সেক্স টয়’ আসা নিয়ে ফেব্রুয়ারি মাসে মুম্বাইয়ের মালাড থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তরুণী। ভারতীয় দণ্ডবিধি এবং তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করে পুলিশ। পরে মুম্বাই পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগে স্থানান্তরিত করা হয় এই মামলা।

মামলা পেয়ে মুম্বাইয়ের পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ কুরিয়ার সংস্থার মাধ্যমে অভিযুক্তের বাড়ির ঠিকানা বের করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কুরিয়ার সংস্থাকে নিজের নাম এবং বাড়ির ঠিকানা দেননি অভিযুক্ত। এরপর পুলিশ ভিপিএন সংক্রান্ত তথ্য জোগাড়ের চেষ্টা করে। তা করতে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে, প্রতিবারই ‘সেক্স টয়’ পাঠানোর সময় আইপি অ্যাড্রেস পরিবর্তন করেছেন অভিযুক্ত। শেষমেশ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের সহায়তা নেয় পুলিশ।

এরপর পুলিশ তাকে খুঁজে বের করতে ভিপিএন সংক্রান্ত তথ্য জোগাড় করতে থাকে। কিন্তু সেখানেও ধাক্কা খায় তারা। কেননা ছেলেটি যতবার মেয়েটির বাড়িতে সেক্স টয় পাঠাত, প্রতিবারই নিজের আইপি অ্যাড্রেস বদলে ফেলত। পুলিশ ওই এলাকার ৫০০ এর বেশি সাইবার প্রোভাইডারের স্ক্যান করে। তবে শেষ পর্যন্ত প্রযুক্তিগত অনুসন্ধান ও অন গ্রাউন্ড ইনটেলিজেন্সের মাধ্যমে সাইবার সেল যুবকটিকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ