বান্ধবীর বাড়ি যেতেই লকডাউন, অতঃপর প্রেম-বিয়ে

- Advertisement -

যে শহরের বান্ধবীর বাড়ি সেখানে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় লকডাউন ঘোষণা করা হলো। পরে সেখানে থেকেই তারা বিয়ে করে স্বামী স্ত্রী পরিচয় পেলেন।

লকডাউনে আটকা পড়ে ‘বিশেষ বান্ধবীর’ বাড়িতেই থাকতে শুরু করেন ঝাও। তবে ‘বন্ধু’ থেকে তারা ‘প্রেমিক প্রেমিকা’ হয়ে যাচ্ছিলেন তা চোখ এড়ায়নি পড়শিদের। বিশেষ বন্ধুটিকে জীবনসঙ্গী করার ব্যাপারে তখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি তিনি। কিন্তু বিধি বাম!

তারা দু’জনকে মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞেস করেন, কী বিয়ের মতলব আছে? একসঙ্গেই সম্মতি দেয় যুগল।

লকডাউনের কারণে যখন বাড়ি থেকে বের হওয়া নিষেধ, তখন একটি ঘরের মধ্যে ঝাও আর তাদর বিশেষ বন্ধু আবদ্ধ হলেন বিবাহ বন্ধনে।

উচ্ছ্বসিত ঝাও চীনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমি অনলাইনে আপেল বিক্রি করি। এ জন্য আমাকে অনেক রাত জেগে কাজ করতে হয়। গোটাটাই নির্ভর করে অনলাইন বাজারের ওপর। আমি যখন রাত জেগে কাজ করি, ফেই আমার জন্য জেগে বসে থাকে। মাঝেমাঝেই গরম কফির কাপে আমাদের বন্ধুত্ব আরও গাঢ় হয়েছে। আমি ফেইকে পেয়ে খুব খুশি।

এ প্রেমকাহিনী চীনের নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বাহবা, শুভেচ্ছার পাশাপাশি যুগলের জন্য সাবধানবাণীও আছে। অনেকেই মনে করছেন, তাড়াহুড়ো করে ফেললেন কি ঝাও?

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ