বীরগঞ্জে রাস্তা যেন ধান -খড় শুকানোর চাতাল

বীরগঞ্জে (দিনাজপুর) বিভিন্ন উপজেলায় কাঁচা-পাকা সড়ক দখল করে ধান মাড়াই সহ ধান ও খড় শুকানোর কাজ করছেন স্থানীয় কৃষকরা। ফলে একদিকে রাস্তা যেমন মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তেমনি বৃদ্ধি পেয়েছে সড়ক দুর্ঘটনা।

মঙ্গলবার সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার বীরগঞ্জ-পীরগঞ্জ সড়ক, বীরগঞ্জ-ঝাড়বাড়ী সড়ক, বীরগঞ্জ -গড়েয়া সড়কসহ গ্রামীণ কাঁচাপাকা রাস্তাগুলো জুড়ে চলছে ধান ও খড় শুকানোর কাজ।

ভাঙ্গা রাস্তাগুলোতে ঝুঁকি নিয়ে বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে যেমন দুর্ভোগ বাড়ছে তেমনি রাস্তায় ধান মাড়াই, ধান ও খড় শুকানোর কাজে বাড়ছে দুর্ঘটনার শঙ্কা।


আরও পড়ুন>>


এসব সড়কপথে বাস, ট্রাক, মিনিবাস, মোটরসাইকেল ছাড়াও ভ্যান এবং অটো-পাগলু চালকরা সার্বক্ষণিক দুর্ঘটনার আতঙ্কের মধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে। কোনো কোনো রাস্তায় ধান মাড়াইয়ের কাজ পর্যন্ত করছেন কৃষকরা। এতে চলাচলের যেমন সমস্যা হচ্ছে, পাশাপাশি সময় অপচয় হচ্ছে।

বর্ষা- গোপালপুর সড়কের কৃষকরা জানান, আলু চাষের পর জমিতে বোরো ধান চাষ করা হয়েছিল। তাই ভরা বর্ষা মৌসুমে বাড়তি কাঁচা মাটিতে ধান -খড় শুকাতে বেশি সময় লাগে। তাছাড়া বৃষ্টি, ঝড়ে ক্ষতিও হয়। পাকা রাস্তায় ফসল শুকানোর ক্ষেত্রে কোনো প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয় না।

বিভিন্ন যানবাহনের চালকরা জানান, রাস্তায় খড় জড়িয়ে যানবাহনগুলোর যেমন ধীরগতি হচ্ছে, তেমনি দুর্ঘটনাও ঘটছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: