বেনজেমার হাতেই ব্যালন ডি’অর দেখছেন রিয়াল কোচ

- Advertisement -

গত মৌসুমে একের পর এক রূপকথার জন্ম দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। বেনজেমার কল্যাণে এক প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে লা লিগা-চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ডাবলস জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর বুধবার (১০ আগস্ট) রাতে আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা দিয়ে লিগ শুরু করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেই জয়েও এক গোল করে শিরোপা জয়ের বিরাট ভূমিকা রাখেন ফরাসি তারকা বেনজেমা। ফ্রাঙ্কফুর্টকে হারিয়ে সুপার কাপ জেতার পর কোচ আনচেলত্তি বলছেন, এবারের ব্যালন ডি’অরের একমাত্র ভাগীদার বেনজেমা।

হেলসিঙ্কিতে উয়েফা সুপার কাপে রিয়াল মাদ্রিদের জয়ে একটি গোল করেন বেনজেমা। এই সুপার কাপ জয়ে মাদ্রিদ ভাগ বসিয়েছে বার্সেলোনা আর এসি মিলানের সর্বোচ্চ সুপার কাপ জয়ের কীর্তিতেও।

দ্বিতীয়ার্ধে বেনজেমার করা গোলের পরই রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি গায়ে রেকর্ড গড়েন ফরাসি এই স্ট্রাইকার। ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে তার করা গোলটি ছিল ৩২৪তম গোল। যার ফলে রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন রাউল গনজালেসকে সরিয়ে।

এ শিরোপা জয়ের ফলে রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন কোচ অ্যানচেলত্তিও। প্রথম কোচ হিসেবে চারবার উয়েফা সুপার কাপে জিতলেন এই ইতালিয়ান। তবে তিনি নিজের রেকর্ডের চেয়ে রিয়ালের জয়টাকেই বড় করে দেখলেন। ম্যাচ শেষে আনচেলত্তি বলেন, ‘আইনট্র্যাখট খুব কাছাকাছি ছিল আমাদের। আমাদের ছন্দ খুঁজে পেতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। কিন্তু এরপর আমরা বেশ ভালো করেছি। নিজেদের পূর্ণ ছন্দ নিয়ে মৌসুমের শুরুটা করা বেশ কঠিন। তবে আমরা এখন শিরোপা জিতেছি, যার ফলে মৌসুমের শুরুটা ভালোই হলো।’

এরপরই বেনজেমার একরাশ প্রশংসা ঝরে পড়ল রিয়াল কোচের কণ্ঠে। আনচেলত্তির কথা, ‘সে খুবই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় আমাদের। সে একজন নেতা। আজ এখানে আমরা আছি তার কৃতিত্বে।’

এই বছর রিয়ালকে মূলত টেনেছেন বেনজেমা। ফলে এবারের ব্যালন ডি’অর জেতাটা সময়ের ব্যাপার মনে করেন কোচ আনচেলত্তি। তিনি বললেন, ‘সে অনেক গোল করে, গেল মৌসুমের শেষটা ভালো করেছে। আজও গোল করল সে। এখন তার ব্যালন ডি’অর জেতার পালা।’

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিদায়ের পর রিয়াল মাদ্রিদের গোল করার ভারটা করিম বেনজেমার ওপরই বর্তায়। আস্থার প্রতিদানও দিয়েছেন এই ফরাসি। গোল তো করেছেনই, প্লে-মেকিংয়েও রেখেছেন দারুণ অবদান। সবশেষ মৌসুমে তো যা করেছেন তাতে অনেকেই তো পারলেই ব্যালন ডি’অরটা এখনই তুলে দেন তার হাতে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ