ভয়ংকর যুদ্ধাস্ত্র পৃথিবীকে দেখাল রাশিয়া

শত্রু মোকাবিলায় অত্যাধুনিক যুদ্ধসরঞ্জামের প্রদর্শনী করলো রাশিয়া। জাপাদ ২০২১ নামে চলমান এ সামরিক মহড়ায় সোমবার বেশ কয়েকটি বিধ্বংসী যান অংশ নেয়।

এদিন মহড়া দেখতে হাজির হন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এদিকে, রাশিয়া ও বেলারুশের মধ্যেকার এ মহড়া নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে পোলান্ড ও লাটভিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশ। তবে, এটাকে রুটিন মহড়া বলে উল্লেখ করেছে মস্কো।

একের পর এক রকেট উৎক্ষেপণ, ভয়াবহ বিস্ফোরণ কিংবা সাঁজোয়া যানের এগিয়ে চলা। গত চার দিন ধরে রাশিয়া ও বেলারুশের অভিন্ন সীমান্তে দেখা যাচ্ছে এমন দৃশ্য। রুশ সেনাবাহিনীর সামরিক এ মহড়ায় প্রতিদিনই প্রদর্শন চলছে নতুন নতুন সামরিক সরঞ্জামের।

সোমবার বেলারুশ ও রাশিয়ার মধ্যকার এ যৌথ সামরিক মহড়া দেখতে উপস্থিত ছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, এদিন অত্যাধুনিক যুদ্ধ বিমানও প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া শত্রুদের হামলা নিশ্চিহ্ন করে দিতে পারে এমন ক্ষেপণাস্ত্রপ্রতিরোধ ব্যবস্থাও উপস্থাপিত হয়।

এদিকে, দু’দেশের মধ্যকার চলমান এ সামরিক মহড়া নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ন্যাটো। আর এমন কার্যক্রম ওই অঞ্চলে উত্তেজনা বৃদ্ধি করতে পারে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে পোলান্ড, লাটভিয়া ও লিথুয়ানিয়াসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশ। তবে, এ নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই বলে জানিয়েছে মস্কো।

জাপাদ ২০২১ নামের সামরিক মহড়াটি রাশিয়া ও বেলারুশের বিভিন্ন অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সপ্তাহব্যাপী এই সামরিক মহড়ায় অন্তত দু’লাখ সেনা অংশ নিচ্ছে। দেশ দুটি ছাড়াও এতে অংশ নিয়েছে আর্মেনিয়া, ভারত, কিরগিস্তান, কাজাখস্তান ও মঙ্গোলিয়ার সেনারা। সামরিক এ মহড়াটি শেষ হবে আগামী বৃহস্পতিবার।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ