মধুচন্দ্রিমায় নির্যাতন, ভাঙল পুনম পান্ডের সংসার

সেপ্টেম্বরের শুরুর দিন বিয়েপর্ব সেরেছিলেন তাঁরা। যদিও সে খবর প্রকাশ্যে আনেন ১০ সেপ্টেম্বর। ২৩ দিনের মাথায় স্বামী স্যাম বোম্বের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী পুনম পান্ডের। অভিযোগ, গোয়ায় মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে স্বামীর হাতে নির্যাতনের শিকার পুনম।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবর, গত মঙ্গলবার পুনমের অভিযোগের ভিত্তিতে স্যাম বোম্বেকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। অবশ্য গতকাল বুধবার ২০ হাজার রুপি মুচলেকা দিয়ে জামিন পেয়েছেন।

মধুচন্দ্রিমায় কী ঘটেছিল পুনমের সঙ্গে? পুনম জানিয়েছেন, স্যামের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কটা বরবারই মারদাঙ্গায় কেটেছে। পুনম ভেবেছিলেন, বিয়ের পর সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু না, ঠিক হয়নি। বরং মধুচন্দ্রিমার দিন পুনমের ভাষ্যে তাঁকে ‘পশুর মতো মেরেছে’ স্যাম।

টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পুনম পান্ডে বলেছেন, ‘স্যামের সঙ্গে আমার কথা কাটাকাটি হয়, যা দ্রুতই ভয়াবহ রূপ নেয়। এরপরই ও আমাকে মারতে শুরু করে। আমার গলা টিপে ধরে এবং আমার মনে হচ্ছিল আমার দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়ে যাবে। আমার মুখে ঘুষি মারে, চুল ধরে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়, এরপর খাটের কোনায় আমার মাথা ঠুকে দেয়। এতেও থামেনি। আমার শরীরের ওপর হাঁটু গেড়ে বসে আমার ওপর নির্যাতন চালায়।’

এরপর পুনম পান্ডে হোটেলের স্টাফকে ডাকেন, তিনি তাঁকে নিয়ে যান। এরপর স্যামের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

পুনম পান্ডে আরো বলেন, স্যাম বোম্বে তাঁকে ‘পশুর মতো’নির্যাতন করেছেন। আর তাই বিয়ের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

দুবছর ধরে স্যাম বোম্বের সঙ্গে একত্রবাস করতেন পুনম । সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে বিয়ে ও বাগদানের সব ছবি মুছে দিয়েছেন স্যাম। তবে এখনো সেসব ছবি ডিলিট করেননি পুনম।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

লেখক

সর্বশেষ সংবাদ

%d bloggers like this: