মহেশখালীতে ফের দূর্ধর্ষ ডাকাতি

মহেশখালীতে আবারও ডাকাতি শুরু হয়েছে ডাকাতির ঘটনা। গত দুইমাসের মধ্যে ষাইটমারার একটি ঘরে ঢুকে স্বর্ণালংকার লুট সহ মোট চারটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে স্থানীয় লোকজন আশংকা করছে এভাবে চলতে থাকলে মহেশখালী হয়ে উঠবে অশান্ত ফিরে আসবে পুরোনো চেহারা।

গত ১২ জুন দিবাগত রাত দুইটার সময় মহেশখালীর উত্তরনলবিলার মাতারবাড়ী রাস্তার মাথা সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে সড়ক অবরোধ করে একদল দূর্বৃত্ত।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হেলাল উদ্দিন(৩৬) পিতা নজু মিয়া, নেজাম উদ্দিন (৩২)পিতা আনু মিয়া,অমিত হাসান (২৩) পিতা নজু মিয়া জানান ১২ই জুন রাত দুইটার সময় বড়ুয়া বাজার থেকে টমটমে চেপে চকরিয়ার উদ্দেশ্য নিকট আত্মীয় একজন অসুস্থ রোগীকে দেখতে যাওয়ার সময় মুখে কাপড়ের মাস্ক বাঁধা সাতজনের একদল ডাকাত হঠাৎ স্থানীয় ভাবে তৈরি এক নলা বন্ধুক উঁচিয়ে গাড়ির গতিরোধ করে। অপর প্রান্ত থেকে আসা সিএনজি’র ড্রাইবার ও ভুট্টো নামে একজন যাত্রীর হাতে থাকা মোবাইল, টাকা ও অন্যন্যা জিনিস পত্র ছিনিয়ে নেয় ডাকাতেরা।

জানা গেছে ভুট্টোর বাড়ি কালারমারছড়া, নুনাছড়ি এলাকায়। এসময় ডাকাতের কবলে পড়া নেজাম উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন তাতে বাঁধা প্রদান করলে বন্দুকের পিছনের অংশের আঘাতে টমটমের কাচ ভেঙে দেয়। তখন হেলাল ও নেজাম বাইরে বেরিয়ে এসে গাড়ির কাচ ভাঙ্গার কারন জানতে চাইলে ডাকাত দলের একজন বলে উঠেন,”আমি নয় আতাউল্লাহ ভেঙ্গেছে, আতাউল্লাহ বলেন আমি নয়, রিদুয়ান ভেঙ্গেছে”পরস্পর পরস্পরকে দোষারোপ করতে থাকেন। পরে তাদের ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে তারা হলেন ঝাপুয়া এলাকার বাসিন্দা রিদুয়ান (৩২) পিতা আজিজুল হক, আতাউল্লাহ (২৯) পিতা আব্দুল খালেক ও আফজলিয়া পাড়া এলারকার জমির উদ্দিন (৩১) পিতা মোহাম্মদ নছিম উদ্দিন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো বলেন বাকিরা সড়ক থেকে নিচে ধানি জমিতে গা ঢাকা দিয়ে থাকায় তাদের চিহ্নিত করা যায়নি।এই ব্যাপারে কালারমারছড়ার পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত ইনচার্জ এসআই জহিরের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন আমি কিছুই জানিনা।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ

Bengali Bengali English English German German Italian Italian