মানিকগঞ্জে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

- Advertisement -

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের কান্দাপাড়া এলাকায় এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম তানিয়া কামাল মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন বলে নিশ্চিত করেন ভুক্তভোগীর আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক।

ধর্ষণের শিকার হওয়া কিশোরীর মা বলেন, ৮ জানুয়ারি বিকেলে বাড়ির পাশের জমিতে প্রতিবেশী শিশু-কিশোরদের সঙ্গে শাক তুলতে যায় তার প্রতিবন্ধী মেয়ে। এ সময় সেখান থেকে প্রতিবেশী তারা মিয়া ওরফে বুচাই মিয়ার ছেলে ইমন (২০) ওই প্রতিবন্ধীকে জোরপূর্বক একটি ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে ওই কিশোরীর সঙ্গীরা বিষয়টি তাদের জানালে ওই ভুট্টা ক্ষেত থেকে প্রতিবন্ধীকে উদ্ধার করে পরিবারের স্বজনরা।

প্রতিবন্ধী কিশোরীর চাচা বলেন, ধর্ষণের পর তার ১৬ বছর বয়সী ভাতিজি গুরুতর অসুস্থ হয়ে যায়। ঘটনার পরদিন সকালে ওই কিশোরীকে মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে এক সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে রোববার বিকেলে তাকে বাড়ি নেওয়া হয়। পরে এই ঘটনায় বাদী হয়ে ভুক্তভোগীর বাবা আদালতে মামলা দায়ের করে বলে জানান তিনি।

ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীর দাদা বলেন, তার ছেলে পেশায় একজন ইটভাটা শ্রমিক। দুই ছেলে এবং প্রতিবন্ধী ওই নাতনিকে নিয়ে তার ছেলের সংসার। ধর্ষণের পরে স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে এক লাখ টাকায় বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে অভিযুক্ত ইমনের স্বজনরা। কিন্তু টাকার বিনিময়ে ওই ঘটনা ধামাচাপা দিয়ে রাজি হয়নি তার নাতনি। পরে বিষয়টি নিয়ে থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ আদালতে মামলা করার পরামর্শ দিলে আদালতে মামলা করা হয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় মেম্বার দেলোয়ার হোসেন লিটন বলেন, বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করা হয়। তবে মেয়ের পরিবার মীমাংসার বিষয়ে রাজি হয়নি।

এসব বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম বলেন, নির্বাচনী দায়িত্ব পালনে তিনি নারায়ণগঞ্জ রয়েছেন। ভুক্তভোগী পরিবার থানা পুলিশে যাওয়ার বিষয়টি তার জানা নেই।

প্রতিবন্ধী কিশোরীর বিষয়ে জানতে চাইলে মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক কাজী একেএম রাসেল বলেন, যৌন নিপীড়নের শিকার হয়ে ১৬ বছর বয়সী এক প্রতিবন্ধী কিশোরী ৯ জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে মানিকগঞ্জ জজকোর্টের আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআই’কে তদন্তের নির্দেশ দেয় বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ