রায়পুরে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়ে খুশি গৃহহীন পরিবাররা, প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া সুবিধাভোগীদের

0
28
রায়পুরে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়ে খুশি গৃহহীন পরিবাররা, প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া সুবিধাভোগীদের
রায়পুরে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়ে খুশি গৃহহীন পরিবাররা, প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া সুবিধাভোগীদের

মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার ২৫ ভূমিহীন, গৃহহীন পরিবার।’আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’ ।”মুজিববর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে পুরো দেশে ৬৬,১৮৯ টি ঘর নির্মান করা হবে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা বাস্তবায়নে লক্ষ্মীপুর জেলায় ১ম পর্যায়ে মোট ২০০ টি ঘর নির্মিত হয়েছে। এর মধ্যে রায়পুরে ২৫ টি। আজ ২৩/০১/২০২১ ইং তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মধ্যে নির্মিত ঘরসমূহ প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন।

শনিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের ৪৯২টি উপজেলার প্রায় ৭০ হাজার পরিবারকে পাকা ঘরসহ জমি হস্তান্তর কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রায়পুর উপজেলার সুবিধাভোগীদের মধ্যে হনুফা বেগম একজন। তিনি উপজেলার চরাবংশী ইউনিয়নের চাউচর গ্রামের বাসিন্দা।তিনি বলেন, ১৮ বছরেই স্বামী পরিত্যক্তা হয়ে সন্তান নিয়ে অন্যের জমির ঝুপড়িতে থাকি। রাস্তার কাজে যোগালির ও অন্যের বাড়িতে কাজ করে নিজের ও সন্তানের খাবার জোগাড় করি। এ খবর পৌঁছায় ইউএনও সাবরীন চৌধুরীর কানে। পরে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমাকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সরকারি পাকা ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী গরিবদের দিকে তাকিয়েছেন। আল্লাহ তাকে সুস্থ রাখুক। তিনি যেন অনেক দিন বেঁচে থাকেন।


আরও পড়ুন>>


উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আখতার জাহান সাথী জানান, কয়েকটি ক্যাটাগরিতে একেবারেই ভূমিহীন অন্যের বাড়িতে আশ্রিত থাকছেন এমন ২৫টি পরিবারকে বাছাই করে পাকা ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এসব ঘর নির্মাণে যেন কোন প্রকার অনিয়ম, দুর্নীতি না হয়, তা তদারকি করছে উপজেলা প্রশাসন। সবগুলো বাড়ি সরকার নির্ধারিত একই নকশায় হচ্ছে।

ইউএনও সাবরীন চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহহীন, ভূমিহীন, হতদরিদ্র মানুষের জন্য রায়পুর ২৫টি ঘর নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছেন। সে অনুযায়ী পাকা ঘরের ব্যবস্থা করেছি। এতে সবাই খুব খুশি। আশা করি এভাবেই অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারবো। ইউপি চেয়ারম্যানসহ প্রশাসনের সবাই স্বতস্ফুর্ত ভাবে সহযোগিতা করেছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ জানান, প্রধানমন্ত্রীর উপহার আমাদের পশ্চিমাঞ্চলের ভূমিহীনদের মুজিববর্ষের শ্রেষ্ঠ উপহার। সকলে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করবেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, রায়পুর উপজেলা পরিষদের উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরীন চৌধুরী, এসিল্যান্ড আক্তার জাহান সাথী, ইউএইচএফপিও ডা. জাকির হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় মারুফ বিন জাকারিয়া ও মাজেদা বেগম, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন অধিদপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ, সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. ওয়াহিদুর রহমান মুরাদ,সদস্য সচিব আজম খান, রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি পীরজাদা মাসুদ হোসাইন, প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহাবুবুল আলম মিন্টু, আনোয়ার ঢালী ও তাবারক হোসেন আজাদ।

Leave a Reply