শীতে কাঁপছিল ঘুমন্ত সালেহা, কম্বল দিয়ে ঢাকলেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা

- Advertisement -

সোহেল রানা, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি।।

উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁও কনকনে শীত, ও শৈত্যপ্রবাহ একদম জবুথবু। এই হার কাঁপানো ঠান্ডার মধ্যে স্টেশনের পাশে একটা টিনচালার নিচে পাটির উপর গায়ে এক টুকরো ছেড়া কাপড় জড়িয়ে ঘুমিয়ে আছেন ছিন্নমূল সালেহা বেগম (৭৫)। ঘড়িতে তখন রাত ১২ টা বেজে ৪৩ মিনিট। ঘুমন্ত অবস্থায় শীতে কাপছিলো এই ৭৯ বছর বয়সী বৃদ্ধা। এ সময় শীত ঠেকাতে ঘুমন্ত সালেহার গায়ে মোটা কম্বল দিয়ে ঢেকে দিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নাজমুল হুদা শাহ্ মো: অ্যাপোলো।

সোমবার দিবাগত রাতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ছিন্নমূল শীতার্ত মানুষদের খুঁজে খুঁজে এভাবেই কম্বল দিয়ে মুড়িয়ে দিচ্ছিলেন এই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা।

ঠাকুরগাঁও রোড রেল স্টেশন, মুন্সির হাট, দূরামারী, বাসস্ট্যান্ড, কলেজপাড়া সহ বিভিন্ন স্থানে ফুটপাতে ঘুমিয়ে থাকা শীতার্ত ছিন্নমূল মানুষদের শীতবস্ত্র দেন এই স্বেচ্ছাসসেবক লীগ নেতা। এই রাতে প্রায় ৫০ জন ছিন্নমূলকে তিনি এভাবে কম্বল দিয়ে মুড়ি দিয়েছেন।

ছিন্নমূল সালেহা বলেন, ঘরবাড়ি নাই, শীত মানেনা এবার। ঘুমাতে কোন শান্তি পাইনি এই শীতে। হঠাৎ অনুভব করি আমার গায়ে আর ঠান্ডা লাগছেনা। চোখ খুলে দেখি কম্বল। আমি খুশী হয়েছি। এবার শীত মানিবে আর ভয় নাই।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অ্যাপোলো বলেন, কয়েকদিনে শৈত্যপ্রবাহ ঠান্ডা বেড়েছে। এতে সবচেয়ে বেশি কষ্টে আছে ছিন্নমূল মানুষরা। আমি তাঁদের কষ্টটা কিছুটা লাঘব করতেই এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। যতদিন শীত থাকবে আমি আমার সাধ্যমত চেষ্টা করবো ছিন্নমূল মানুষদের শীতে কষ্ট লাঘব করার।

এসময় জেলা ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের অন্যান্য নেতারা তার সফর সঙ্গী হিসেবে ছিলেন।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ