সরবরাহ ভালো, তারপরও কমছে না তরমুজের দাম

- Advertisement -

তরমুজে সয়লাব মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুর হাট। সরবরাহ ভালো তারপরও দাম কমছে না। ক্রেতাদের অভিযোগ, গরমে তরমুজের চাহিদাকে পুঁজি করে মধ্যস্বত্বভোগীরা ফায়দা লুটছে। কৃষি বিভাগও বলছে, পাইকারি ও খুচরা বাজারের দামে বিরাট পার্থক্য।

তরমুজের মেলা। থরে থরে সাজানো তরমুজ। মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুরে বিশাল হাট জুড়েই গ্রীষ্মকালীন পানি জাতীয় মৌসুমি ফলটির পসরা। ঈদের পর তরমুজের সরবরাহ বেড়েছে।

কিন্তু হাট তরমুজে সয়লাব হলেও কমছে না দাম। গরমে তরমুজের চাহিদা বেশি। ক্রেতাদের অভিযোগ, এই সুযোগ নিয়ে মধ্যসত্ত্বভোগীরা ফায়দা লুটলেও সুফল পাচ্ছেন না কৃষক।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেন ব্যাপারী ও খুচরা বিক্রেতারা। ১৫ কেজি ওজনের তরমুজ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ৪০০ টাকা পর্যন্ত। আর এক থেকে দুই কেজি ওজনের তরমুজ পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ২০ টাকায়।

মুন্সীগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক মো. খোরশেদুল আলম বলেন, পাইকারি ও খুচরা বাজারের দামে বিরাট ফাঁক।

কৃষক থেকে আড়ত ও পাইকারি কেনার পর খুচরা বিক্রেতা, এই দুই ধাপে কয়েকগুণ দাম বাড়ছে তরমুজের।

এখানকার ৯টি আড়তে প্রতিদিন বিক্রি হয় প্রায় অর্ধকোটি টাকার তরমুজ।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

প্রতিবেদক

সর্বশেষ সংবাদ