হিমাগার নেই, তাই খোলা মাঠেই পড়ে আছে আলু

0
5
হিমাগার নেই, তাই খোলা মাঠেই পড়ে আছে আলু
হিমাগার নেই, তাই খোলা মাঠেই পড়ে আছে আলু

আলু উৎপাদনের শীর্ষ জেলা মুন্সীগঞ্জে বিপুল পরিমাণ আলু হিমাগারে সংরক্ষণ করা সম্ভব হয়নি। বিক্রির জন্য পর্যাপ্ত পাইকার না থাকায় কমে গেছে দাম। তাই খোলা আকাশের নিচে পড়ে থাকা আলু স্থানীয় পদ্ধতিতে মাচার ওপর সংরক্ষণ করছেন কৃষক।

পাট কাঠি বা বাঁশের বেড়ায় তৈরি ঘরে মাচার ওপর রাখা হয়েছে আলু। কৃষি বিভাগের তথ্য মতে মুন্সীগঞ্জের প্রায় ৫ লাখ মেট্রিক টন আলু হিমাগারে সংরক্ষণ করা যায়নি। আলু বিক্রির পাইকারও পাওয়া যাচ্ছে না। মাঠে কেজি প্রতি আলুর দাম ১০ টাকা। আর উৎপাদন খরচ গড়ে প্রায় সাড়ে ১২ টাকা। হিমাগার সংকটে স্থানীয় পদ্ধতিতে ঘরে ঘরে আলু সংরক্ষণ করা হয়েছে। কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শে প্রাচীন পদ্ধতি ব্যবহার করে ক্ষতি কমিয়ে আনার চেষ্টা করছেন কৃষক।


আরও পড়ুন>>


তারা বলেন, পাটকাঠির বেড়া দিয়ে আলু সংরক্ষণ করছি। আলুর দাম নাই। খোলা আকাশের নিচে পড়ে থাকা আলু স্থানীয় পদ্ধতিতে সংরক্ষণে জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এই পদ্ধতিতে ৩ মাস আলু সংরক্ষণ সম্ভব বলে জানান কৃষি কর্মকর্তা সৌরভী ছায়া। তিনি বলেন, ঠাণ্ডা জায়গায় আলু শুকায় কম। পোকার আক্রমণ হয় কম।

কৃষি অফিসের তথ্যমতে, জেলায় উৎপাদন হয়েছে প্রায় ১৩ লাখ মেট্রিক টন আলু। আর ৬৮টি হিমাগারের ধারণ ক্ষমতা সাড়ে ৫ লাখ মেট্রিক টন।

Leave a Reply