Homeআন্তর্জাতিকনিউইয়র্কে পাকিস্তানি ইউটিউবারকে গুলি করে হত্যা

নিউইয়র্কে পাকিস্তানি ইউটিউবারকে গুলি করে হত্যা

নিউইয়র্কে ভারত-পাকিস্তান টি-২০ বিশ্বকাপ ম্যাচ চলার সময় একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। সেখানে এক পাকিস্তানি ইউটিউবারকে গুলি করে হত্যা করেছে এক নিরাপত্তাকর্মী। রোববার (৯ জুন) ম্যাচ চলাকালে এই ঘটনা ঘটে।

ৱপাকিস্তানের গণমাধ্যমগুলো দাবি করেছে, ওই ইউটিউবারের নাম সাদ আহমেদ। তিনি ভারত-পাকিস্তান টি-২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা দেখতে নিউইয়র্কে যান। সেখানে ম্যাচ নিয়ে ভ্লগ বানানোর সময় তাকে গুলি করা হয়।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, ঘটনার সময় নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচের জন্য তিনি কয়েকজনের সাক্ষাৎকার নিচ্ছিলেন।

সাক্ষাৎকার নেয়ার জন্য সাদ নিউইয়র্কের মোবাইল মার্কেটে গিয়েছিলেন এবং ওই নিরাপত্তারক্ষীর সাক্ষাৎকার নেয়ার আগে তিনি বেশ কয়েকজন দোকানদারের ভিডিও বাইট নিচ্ছিলেন। তার ইচ্ছে ছিল ওই নিরাপত্তারক্ষীর সঙ্গেও কথা বলার।

এরপর সাদ তার মতামত নেয়ার চেষ্টা করেন এবং জানান যে ভিডিওতে তার কথা এবং চেহারা দেখানো হবে। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষী এতে বাধ সাধেন। বলেন, তিনি ভিডিওতে কথা বলতে আগ্রহী নন। তাকে যেন এ বিষয়ে চাপ প্রয়োগ করা না হয়।

কিন্তু সাদ তারপরও তার ভিডিও তৈরির জন্য জোর করতে থাকেন নিরাপত্তারক্ষীকে। এতে নিরাপত্তারক্ষী ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এবং রাগের মাথায় ইউটিউবারকে গুলি করে বসেন। এরপর সাদকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর পর ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, ইউটিউবারকে গুলি করার আগে তিনি ওই নিরাপত্তাকর্মীর সঙ্গে কথা বলছেন। এ ঘটনায় পুলিশ আটক করেছে নিরাপত্তাকর্মীকে।

ওই নিরাপত্তাকর্মীকে উদ্ধৃত করে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে বলা হয়েছে, ‘তিনি আমার মুখের কাছে মাইক আনেন এবং চিত্রগ্রহণ করতে থাকেন। আমি আমার মেজাজ হারিয়ে ফেলেছিলাম এবং তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালাই।’

পাকিস্তান রোববার সেই ম্যাচে ভারতের কাছে ৬ রানে হেরেছে।

এদিকে সাদের এক বন্ধু দাবি করেছেন, তিনিই ছিলেন তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী।

সর্বশেষ খবর

Exit mobile version