বৃহস্পতিবার, জুন ১, ২০২৩

২০২৩ হতে পারে দেশের ক্রিকেটের ইতিহাস লেখার বছর

Date:

এ সম্পর্কিত পোস্ট

মার্টিনেজকে আনতে তৎপরতা শুরু করেছে বিকাশ

বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজকে আনতে তৎপরতা শুরু করেছে বিকাশ।...

ধোনির কাছে হারায় আফসোস নেই পান্ডিয়ার

আইপিএল ইতিহাসে সম্ভবত সেরা ফাইনাল উপভোগ করেছে দর্শকরা। শেষ...

চীনে তরুণদের বেকারত্বে রেকর্ড

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনে বেকারত্ব বেড়ে গেছে।...

কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণে ব্যর্থ উত্তর কোরিয়া

কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণের প্রচেষ্টা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। বুধবার (৩১মে)...

বাংলাদেশি শিশুর চিঠির জবাব দিলেন শি জিনপিং

চীনের মেডিকেল কলেজে পড়ার ইচ্ছা ব্যক্ত করে চীনের প্রেসিডেন্ট...

নতুন বছরের পুরোটা সময় মাঠে থাকবে টাইগার ক্রিকেট। টানা শিডিউলে যেন দম ফেলার ফুসরত নেই। ওয়ানডে বিশ্বকাপ আর এশিয়া কাপ ছাড়াও আছে ৬টি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। ব্যস্ততা আছে নারী ক্রিকেট আর বয়সভিত্তিক পর্যায়েও।

এক বুক স্বপ্ন আর সম্ভাবনা নিয়ে নতুন বছরের প্রথম সূর্যোদয়৷ ২০২৩, অন্য ক্ষেত্রের মতো এ বছরটি হতে পারে টাইগার ক্রিকেটের জন্য সোনার হরফে লেখার একটি বছর৷

জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর, ঘরোয়া কিংবা আন্তর্জাতিক৷ জাতীয় দল কিংবা নারী ক্রিকেট, ফ্রাঞ্চাইজি কিংবা বয়সভিত্তিক৷ পুরো বছর ছড়াবে উন্মাদনার রেণু৷

আগামী শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) থেকে শুরু ৭ দলের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)৷ ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে আসবে ইংল্যান্ড৷ খেলবে তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি৷

এক টেস্ট, ৩ ওয়ানডে ৩ টি-টোয়েন্টি খেলতে আইরিশরা, আসবে মার্চের শেষে৷ ফিরতি সফরে বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ড যাবে মে মাসে৷ জুন জুলাইয়ে আসবে আফগানিস্তান৷ ৫০ ওভারের হবে এশিয়া কাপও৷

সেপ্টেম্বরে তাসমান সাগরপাড়ে যাবে বাংলাদেশ৷ ডিসেম্বরে যাবে আরও একদফা৷ মাঝে অক্টোবর-নভেম্বরে স্বপ্নের ওয়ানডে বিশ্বকাপ৷

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানান, নতুন বছর ব্যস্ত সূচিতে ঠাসা দেশের ক্রিকেটে। ওয়ানডে বিশ্বকাপ ছাড়াও আন্তর্জাতিক এবং ঘরোয়া অনেক টুর্নামেন্ট রয়েছে। বাংলাদেশকে কাটাতে হবে কঠিন পথ। ২০২৩ হতে পারে দেশের ক্রিকেটের জন্য নতুন ইতিহাস লেখার বছর৷

২০২২ সালে বাংলাদেশের পারফম্যান্স ছিল গড়পড়তা৷ ব্যাটিংটাই বারংবার ভুগিয়েছে দলকে৷ তবে এর মাঝেও ব্যতিক্রম ছিলেন লিটন৷ নতুন বছরে তাই এরাই হবেন অনুপ্রেরণা৷

ক্যালেন্ডার চূড়ান্ত না হলেও বিসিবি এইচপি ইউনিট, অনূর্ধ্ব-১৯ কিংবা ‘এ’ দলের ব্যস্ততা থাকবে পুরো বছরজুড়ে৷ এছাড়াও নারী ক্রিকেটে আছে বয়সভিত্তিক বিশ্বকাপ৷ টাইগ্রেসদের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর ছাড়াও আছে এফটিপির একাধিক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ৷ সব মিলিয়ে নতুন বছরে ক্রিকেট উন্মাদনায় ভেসে যাওয়ার অপেক্ষা৷

সর্বশেষ সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here