Home Blog

মহাকাশে শুটিং শেষে ফিরলেন তারা

মহাকাশে চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিতে যাওয়া রাশিয়ার কলাকুশলীরা আবারও পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন।

টানা ১২ দিন শুটিং শেষে রোববার সয়ুজ ক্যাপসুলে করে তারা পৃথিবীতে ফিরে আসেন।

গত বছর প্রথমবারের মতো মহাকাশে সিনেমা তৈরির ঘোষণা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু তারপরে যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে এগিয়ে গেল রাশিয়া। গত মাসে রাশিয়ার একটি দল বিশ্বে সবার আগে সিনেমার শুটিং করতে মহাকাশে পাড়ি জমায়। রেকর্ড গড়ে রাশিয়ার দলটি ১২ দিন ধরে মহাকাশে শুটিং করে পৃথিবীতে ফিরে এসেছে।

সোয়ুজ মহাকাশযানটি রোববার সকালে তিনজনকে নিয়ে পৃথিবীতে ফিরে আসে। অবতরণের পর সিনেমাটির অভিনেত্রী, ডিরেকটর ও মহাকাশচারী- সবাই সুস্থ রয়েছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। মহাকাশ স্টেশনে থাকা আরও ৬৫ জন অন্যান্য দৃশ্যের শুটিং চালিয়ে যাবেন।

এর আগে শনিবার মহাকাশে ওই তিনজনের বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। ছবিটিতে প্রধান চরিত্রে থাকা অভিনেত্রী ইউলিয়া প্যারেসিলড একজন ডাক্তারের চরিত্রে অভিনয় করছেন। যেখানে তিনি কোনো মহাকাশচারীর প্রাণ বাঁচাতে সেখানে ভ্রমণ করবেন।

আগামী বছর সিনেমাটি মুক্তির কথা রয়েছে।

শেখ রাসেলের হত্যাকারীরাই ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করছে: অ্যাডভোকেট কামরুল

শেখ রাসেলকে যারা হত্যা করেছে সেই শক্তি এখন ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে বলে মনে করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি।

তিনি বলেন, ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করে সম্প্রীতির বাংলাদেশকে ধূলিসাৎ করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। সুস্থ ধারার রাজনীতি করতে হলে অপশক্তিকে দেশের রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করতে হবে।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ ও কাজী আরেফ ফাউন্ডেশন আলোচনা সভার আয়োজন করে। সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

আইএসআইয়ের এজেন্ট জিয়াউর রহমান ও মোস্তাকরা ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড করেছিল বলেও জানান কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘একাত্তর ও পঁচাত্তরের ঘাতকদের বর্বরতা এখনো থামেনি। অপশক্তিকে এখনো নির্মূল করা যায়নি। এমন বর্বরতা বিশ্বের ইতিহাসে ঘটেনি। অপশক্তিরা বিএনপি নামক দলের সঙ্গে আঁতাত করেছিল।’

সুস্থ রাজনৈতিক ধারাকে কলুষিত করছে তারা। বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিএনপি যেটা করছে সেটা ঠিক নয় বলেও জানান এই আওয়ামী লীগ নেতা।

সুস্থ ধারার রাজনীতি করতে হলে অপশক্তিকে দেশের রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করতে হবে। এ বিষয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান তিনি। বলেন, ‘সব ক্ষেত্রে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে আর সেই অগ্রগতিকে থামিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। এদের কাছে দেশ বড় না। এদের কাছে পাকিস্তানের এজেন্টরা বড়।’

একই অনুষ্ঠানে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসান বলেন, ‘পাকিস্তানের দোসররা আমাকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। ডাক্তার মুরাদ হাসানকে দাবায়ে রাখার মতো এমন শক্তির পয়দা বাংলার মাটিতে হয় নেই। কেউ আমাকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবে না।’

মুরাদ হাসান বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যার এক নম্বর খুনি জিয়াউর রহমান, দুই নম্বর খুনি বেগম খালেদা জিয়া। সংবিধান নিয়ে কথা বলার অধিকার মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের আছে। ডাক্তার মুরাদ হাসান কোনো অন্যায় কথা বলেনি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ক্ষমা চাইলে জাতির পিতার কাছে চাইব। বঙ্গবন্ধুকন্যার কাছে ক্ষমা চাইব। আর কারো কাছে ক্ষমা চাইব না বলেও জানান তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

জিয়াউর রহমানের কোনো স্মৃতিঘর বাংলাদেশে থাকবে না। রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যান থেকে তার কথিত লাশ তুলে ফেলা হবে। ইসলামের নাম বলে ধোঁকাবাজি দেশে চলবে না। কোনো ধর্ম ব্যবসা চলতে দেওয়া হবে না এখানে।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শাজাহান খান বলেন, ধর্মের দোহাই দিয়ে ৭১ সালে ৩০ লাখ মানুষকে হত্যা করেছে রাজাকাররা। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করায় কিছু মানুষের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।

বাংলাদেশ ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। ক্ষমতায় এসে সংবিধানে বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম যুক্ত করলেই ধর্মনিরপেক্ষ দেশ হয়ে গেল বলে প্রশ্ন করেন তিনি। বলেন, সংবিধানে বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম যুক্ত করে মদের লাইসেন্স দিয়েছে বেগম জিয়া।

যারা ইসলামের কথা বলেন, তারা কোথায় ছিলেন ৭১ সালে? যখন এ দেশের এত মানুষকে হত্যা করা হলো, মা-বোনদের নির্যাতন করা হলো। যারা আজকে ইসলামের কথা বলে মন্দিরে ভাঙচুর করছে, তারা কোরআনের কোন আলোকে এসব কর্মকাণ্ড করছে?

পেশাদার খুনি হিসেবে বিএনপিকে অ্যাখ্যায়িত করেন তিনি। এসব খুনিরা রাষ্ট্রে ক্ষমতায় থাকলে রাষ্ট্রের উন্নতি হয় না।

নিউইয়র্কে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে বাংলাদেশি নিহত

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আবু ছালা মিয়া নামে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। তিনি সেখানে খাবার সরবরাহকারী হিসেবে কাজ করতেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সময় শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাত ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আবু ছালা মিয়া (৫১) ই-বাইকে করে গ্রুবহাব নামক একটি প্রতিষ্ঠানের অধীনে খাবার সরবরাহের কাজ করতেন। ছিনতাইকারীরা প্রথমে তার মুখে ঘুষি মারে। পরে তার পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পুলিশ আহত ছালাকে বেলভিউ হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা পুলিশকে জানিয়েছে, ছালা মিয়া একটি ই-বাইক চালিয়ে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। এমন সময় ছিনতাইকারীরা তাকে থামান এবং তার বাইকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে হামলাকারী একটি ছুরি বের করে তাকে আঘাত করে।

‘কপিল শর্মা শো’ বন্ধের কারণ জানালেন কপিল

‘দ্য কপিল শর্মা শো’ জনপ্রিয় অনুষ্ঠান। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ২১ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছিল অনুষ্ঠানটি। কিন্তু হঠাৎ করেই আবার বন্ধ হয়ে যায় এটি।

শো বন্ধের কারণ নিয়ে বিভিন্ন কারণ শোনা গিয়েছিল। ভক্তরাও এটি বন্ধ হওয়ার পেছনের কারণ খুঁজছিলেন। এবার অনুষ্ঠানটির বন্ধের কারণ জানিয়েছেন কপিল শর্মা নিজেই।

অবশেষে মুখ খুলেছেন তিনি। জানিয়েছেন, পিঠে আঘাত পাওয়ার কারণে অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিতে হয়েছিল তাকে। খবর আনন্দবাজার।

জানা গেছে, ২০১৫ সালে প্রথম পিঠে আঘাত পেয়েছিলেন কপিল শর্মা। চিকিৎসা করিয়েছিলেন আমেরিকায়। কিছুদিন সুস্থ থাকার পর চলতি বছর আবার ব্যথা পান। বিশ্ব মেরুদণ্ড দিবসে কথাগুলো জানান তিনি।

কপিল বলেন, ‘আমার অনেক পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু ২০২১ সালে আবার পিঠে ব্যথা পাই। এই কারণেই শোটি আমাকে বন্ধ করে দিতে হয়েছে।’ এ সময় তার মানসিক ও শারীরিক পরিবর্তন হয়েছে বলেও জানান তিনি।

কপিল আরও বলেন, ‘ব্যথার কারণে আমার আচরণে পরিবর্তন এসেছিল। বিছানা ছেড়ে উঠতে ইচ্ছে করত না। দিনের প্রায় সময় শুয়ে থাকার কারণে ওজন বেড়ে গিয়েছিল। খাওয়া-দাওয়া নিয়ন্ত্রণ করেছি। তাই আপাতত সুস্থ আছি। আবার পুরোদমে কাজ শুরু করব।’

এদিকে কিছুদিন আগেই কপিলের শো ‘দ্য কপিল শর্মা শো’র বিরুদ্ধে এফআইআর করেছিলেন মধ্যপ্রদেশের এক আইনজীবী। অভিযোগে বলেন, একটি এপিসোডে মদ্যপান করার দৃশ্য দেখানো হয়। একটি কোর্টরুম সিন ছিল।

আদালতের প্রেক্ষাপটে মদ্যপান করার দৃশ্য দেখানো অসম্মানজনক বলে মনে করেছিলেন সেই আইনজীবী। মধ্যপ্রদেশের শিবপুর জেলার সিজেএম কোর্টে ফাইল করা হয় ওই এফআইআর।

সাবরিনা বশিরের ‘দিল্লি কা লাড্ডু’

এই সময়ের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সাবরিনা বশির। আধুনিক কিংবা ফোক সব ধারায় তার কণ্ঠের বিচরণ। কণ্ঠের জাদুতে শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন এই সঙ্গীত শিল্পী।

আসিফ আকবর, তাহসান, কাজী শুভ ও পথিক হাসানসহ সময়ের জনপ্রিয় সব শিল্পীদের সাথে বেশ কিছু শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন তিনি। শ্রোতাপ্রিয়তায় পেয়েছেন বিভিন্ন অ্যাওয়ার্ডও।

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি গান নিয়ে শ্রোতাদের মাঝে হাজির হচ্ছেন জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্পী। তার মধ্যে ‘দিল্লি কা লাড্ডু’ শিরোনামের একটি গান রয়েছে।

গানটিতে মডেল হয়েছেন সাবরিনা বশির ও আশিক চৌধুরী। কোরিওগ্রাফার ছিলেন রোহান ও বেলাল। চিত্রগ্রাহক ছিলেন বিকাশ সাহা। গানের ভিডিও নির্মাণ করেছেন মোহন ইসলাম। গানটি আসছে ৩০-এ অক্টোবর এ কণ্ঠশিল্পীর জন্মদিন উপলক্ষে ইউটিউবে প্রকাশ করা হবে।

সাবরিনা বশির বলেন , ‘আমি শৈশব থেকেই গান চর্চা করি। গানের প্রতি ভালোবাসা থেকেই শিল্পী হওয়া। সবসময় চেষ্টা করি শ্রোতাদের ভালো গান উপহার দেওয়ার। গান দিয়েই শ্রোতাদের মনে বেঁচে থাকতে চাই সারাজীবন। বাংলা গানের জয় হোক।’

নতুন গান গুলোর মধ্যে রয়েছে আসিফ আকবের সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠে ‘মধুচোরা’ এবং একক গান ‘ফুলের কানে ভ্রমর এসে’। সম্প্রতি এই শিল্পীর ‘জলে গিয়েছিলাম সই’ নামে একটি ফোক গানের(কাভার) ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে।

দুই শিশুকে জোর করে কীটনাশক পান করানোর পর মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ২ শিশুসন্তানকে কীটনাশক পান করিয়ে আয়শা আক্তার (৩০) নামে এক গৃহবধূর নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সোনারগাঁও আষাঢ়ীয়ারচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তাদের তিনজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে স্টমাক ওয়াশ করানো হয়েছে।

উদ্ধার হওয়া তিনজন হলো- শিখা আক্তার, তার পাঁচ বছরের মেয়ে আয়েশা ও পাঁচ মাস বয়সী ছেলে সুফিয়ান।

তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া শিশু আয়েশার চাচা মোবারক হোসেন জানান, শিশুদের বাবা আওলাদ হোসেন ড্রেজার ব্যবসায়ী আর মা শিখা গৃহিণী।

দীর্ঘদিন ধরে শিখার মানসিক সমস্যা ছিল। যখন আওলাদ হোসেন বাসার বাইরে ছিল তখন শিখা বাসায় থাকা কীটনাশক দুই বাচ্চাকে জোর করে খাইয়ে দেয়। এরপর নিজেও সেই কীটনাশক পান করে।

পর তাদের অসুস্থ অবস্থায় দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সেখান থেকে চিকিৎসরা তাদের পাঠিয়ে দেয় ঢাকা মেডিকেলে।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, দুপুর পৌনে ১টার দিকে দুই শিশুসন্তান এবং তাদের মাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। চিকিৎসকরা ৩ জনকেই স্টমাক ওয়াশ করান। পরে তাদের মিটফোর্ড হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি সোনারগাঁ থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

ফুলবাড়ীতে শেখ রাসেল দিবস পালিত

সিরাজুল ইসলাম, ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি।।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ১৮ অক্টোবর সোমবার বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন শেখ রাসেল দিবস পালন করেছে উপজেলা প্রশাসন। দিবসটি উপলক্ষ্যে সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে স্থাপিত শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করে উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, সহকারী কমিশনার (ভূমি), তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব শিক্ষকবৃন্দ, ফুলবাড়ী মহিলা ডিগ্রী কলেজ।

এরপর শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ আব্দুল বাতেন। সকাল সাড়ে ১০ টায় “শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস অদম্য আত্মবিশ্বাস” প্রতিপাদ্যেকে সামনে রেখে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন দাস। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার।

বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিমল চাকমা, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা কৃষ্ণমোহন হালদার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল হাই রকেট প্রমূখ। সভা শেষে শেখ রাসেল দিবস ২০২১ উপলক্ষ্যে আয়োজিত কুইজ ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রভাষক জাকারিয়া মিঞা। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মজিবর রহমান, মৎস্য কর্মকর্তা রায়ান উদ্দিন সরদার, সমাজসেবা কর্মকর্তা রায়হানুল ইসলাম, সহকারী প্রোগ্রামার আজমল আবসার, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সোহেলী পারভীন, সহকারী যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুর রহমান, সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আশরাফুজ্জামান, একাডেমিক সুপারভাইজার আব্দুস সালামসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও সূধীজন।

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় নারীসহ দুজনের লাশ উদ্ধার

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় নারীসহ দুজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এরা হলেন রেখা (৪৫) ও অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধ (৬৫)।

মৃতদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে পল্টন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, খবর পেয়ে রাত ৩টার দিকে বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর পাশের গেট থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে সেখানে ভোর সাড়ে ৪টায় চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, ওই নারী ভবঘুরে প্রকৃতির। শুধু নিজের নামটি বলতে পেরেছিল। এ ছাড়া আর কোনো ঠিকানা বলতে পারেনি। ধারণা করা হচ্ছে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, রাত ১১টার দিকে ওই বৃদ্ধকে হাসপাতালে নিয়ে যান ঢাকা রেলওয়ে থানা পুলিশ। তার মাধ্যমে জানা যায়, রেলওয়ের পুরাতন মসজিদের পাশে ফুটপাতে মৃত অবস্থায় পড়েছিল ওই ব্যক্তি। তার নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

ইতালির রোমে ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন

বিক্ষোভে উত্তাল ইতালির রাজধানী রোম। তিনটি শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে শনিবার (১৬ অক্টোবর) এ বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়। এদিন ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছে বিক্ষোভকারীরা। মূলত শ্রমিক ফেডারেশনের অফিসে হামলার বিরুদ্ধে এ বিক্ষোভে অংশ নেন দুই লক্ষাধিক মানুষ।

স্থানীয় সময় শনিবার (১৬ অক্টোবর) রোমের সানজুবানীর চত্বরে একে একে জড়ো হতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে জনসমুদ্রে পরিণত হয় আশপাশের এলাকা। ফ্যাসিবাদবিরোধী স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে চারপাশ।

মূলত গ্রিন পাসবিরোধী আন্দোলনে ফ্যাসিবাদী রাজনৈতিক দল ফরছা নোভা‌র নেতাকর্মীদের হামলার প্রতিবাদে এ বিক্ষোভের আয়োজন করা হয়েছে। এদিন রোম ও এর আশপাশের শহর থেকে ২ লাখেরও বেশি মানুষ এ বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে।

আন্দোলনে অংশগ্রহণ করা বিক্ষোভকারীরা বলেছেন, আমাদের সংগঠনের কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটেছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর তা কখনোই ঘটেনি। গণতান্ত্রিক দেশে এ ধরনের ফ্যাসিবাদী হামলা মেনে নেওয়া যায় না। আমাদের গণতন্ত্র সংবিধান এবং মানুষের মৌলিক অধিকার ধ্বংস করার পাঁয়তারা হিসেবেই দেখছি বলে জানান তারা।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের আগে ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উৎপত্তি এবং প্রচলন শুরু হয়। বেনিতো মুসোলিনি এই ফ্যাসিবাদের মতাদর্শ ও আন্দোলনের সূচনা করেন । ১৯৪৩ সালের ২৫ জুলাই ফ্যাসিবাদ ধ্বংস হয়। মূলত এই ফ্যাসিবাদ ছিল গণতন্ত্রবিরোধী কট্টর ডানপন্থিদের মতাদর্শ।

প্রস্তুতি নিচ্ছেন সামান্থা

দক্ষিণী নায়িকা সামান্থা রুথ প্রভু। দিন কয়েক আগেই চতুর্থ বিবাহবার্ষিকীর আগে নাগা চৈতন্যর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছিলেন। এরপর থেকেই অভিনেত্রীকে ঘিরে নানা জল্পনা শুরু হয়। সামান্থা রয়েছেন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।

তার জীবনের এসব কঠিন সময়ের মধ্যেই ফিরেছেন কাজে। সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন হিন্দি সিনেমায়। শুটিং শুরু করবেন খুব শিগগিরই। তার নতুন সিনেমার প্রস্তুতির জন্যই দিনের বেশির ভাগ সময় দিচ্ছেন জিমে।

ব্যক্তি জীবনে যতই ঝামেলা থাকুক না কেন ক্যামেরার সামনে থাকা চায় একদম ফিট। কারণ তার কাজ ক্যামেরার সামনে। ব্যক্তিগত টানাপোড়নের কারণে কয়েকদিন সেই অভ্যাসে বিরতি ছিল।

সম্প্রতি এই লাস্যময়ী অভিনেত্রী তার ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, জিমে ঘাম ঝরাচ্ছেন তিনি। মজা করে লিখেছেন, ৩০ কিলোর ডাম্বেল তুলতে পারেনি।

মাস দুয়েক আগে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায় তার ওয়েব সিরিজ ‘ফ্যামিলি ম্যান ২’। সামান্থার ক্যারিয়ারের মোড় অনেকটাই ঘুরিয়ে দিয়েছে এই ওয়েব সিরিজ। জাতীয়, আন্তর্জাতিক স্তরে এই ওয়েবের মাধ্যমেই প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। এরপরই তার কাছে বলিউডের প্রস্তাব আসে।

সামান্থা বেছে কাজ করতে পছন্দ করেন। বেশ কিছু চিত্রনাট্য বাতিল করার পর হিন্দি সিনেমার চিত্রনাট্য পছন্দ হয়েছে। কলা-কুশলী বাছাই চলছে নাম ঠিক না হওয়া ওই সিনেমার। সে কারণেই এই ছবি ঘিরে গোপনীয়তা অনেক বেশি।

একটি তেলেগু সিনেমাতেও চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘রাঙ্গাস্থালাম’খ্যাত এ অভিনেত্রী। নারী কেন্দ্রিক এ সিনেমার শুটিং আগামী নভেম্বর থেকে শুরু করবেন তিনি।

শোনা যাচ্ছে, সামান্থা মুম্বাইয়ে একটি ফ্ল্যাট কিনেছেন। বলিউড সিনেমায় ক্যারিয়ার মনোনিবেশ করার জন্য। বর্তমানে সামান্থার একাধিক সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। পৌরনিক কাহিনি ঘরানার ‘শকুন্তলাম’ সিনেমার শুটিং শেষ করেছেন। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ’কাতুবাকুলা রেন্ডু কাদাল’ সিনেমাটি।

বিবাহবিচ্ছেদের পর নাগা ও তার পরিবার সামান্থাকে ভরণপোষণের জন্য ২০০ কোটি রূপি দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু নায়িকা নাগা ও তার পরিবারের কাছ থেকে তা নিতে রাজি হয়নি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সামান্থার একটি সূত্র জানায়, সামান্থা এই সম্পর্কটা থেকে শুধু বন্ধুত্ব এবং ভালোবাসা চেয়েছিলেন। বিয়ে ভেঙে গেল। সামান্থা এক টাকাও নেবেন না।